Alexa খুলে দেয়া হল দ্বিতীয় ধরলা সেতু

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৪ ১৪২৬,   ১৯ মুহররম ১৪৪১

খুলে দেয়া হল দ্বিতীয় ধরলা সেতু

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

ডেইলি-বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ০৭:৫৮ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০৯:০৩ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

খুলে দেয়া হল দ্বিতীয় ধরলা সেতু। শনিবার বিকেলে লালমনিরহাট জেলা পরিষদের চেয়ারমান অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান ও কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী যৌথভাবে সেতুটি খুলে দেন। এ সময় সেতুর দু’ধারে ছিল উৎফুল্ল জনতার ভিড়।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন- কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক সুলতানা পারভীন, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের নির্বাহী প্রকৌশলী (কুড়িগ্রাম) সৈয়দ আব্দুল আজিজ, কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার মো. মেহেদুল করিম, ফুলবাড়ী উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা দেবেন্দ্রনাথ উরাওঁ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান শেখ, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী সরকার প্রমুখ।

ফুলবাড়ী উপজেলার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের রামপ্রশাদ ও লালমনিহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নের চর কুলাঘাট এলাকার মধ্যবর্তী ধরলা নদীর উপরে নির্মিত সেতুটি বাস্তবায়ন করেছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) কুড়িগ্রাম।

দীর্ঘদিন ধরে ধরলা নদীর উপরে একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছিল কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী, ভুরুঙ্গামারী ও নাগেশ্বরী উপজেলার অন্তত ২০ লাখ মানুষ। এরপর ২০১২ সালের ১২ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কালেক্টরেট মাঠে জনসভায় সেতুর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।

সে অনুযায়ী, ৯৫০ মিটার দীর্ঘ সেতুটি নির্মাণে ১৯৬ কোটি ৭৬ লাখ ৬৪ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। ২০১৪ সালের ২৪ এপ্রিল ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স নাভানা কনস্ট্রাকশনের সঙ্গে এলজিইডি’র সেতু নির্মাণ সংক্রান্ত চুক্তি হয়। ২৬ মাসের মধ্যে সেতু নির্মাণ কাজ শেষ করার কথা থাকলেও বিভিন্ন কারণে দুই দফায় সময় বাড়ানো হয়। এরপর গত ৩১ ডিসেম্বর নির্মাণ কাজ শেষ করে সেতুটি বুঝিয়ে দেয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে