Alexa জমজমাট প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

ঢাকা, রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৭ ১৪২৬,   ২২ মুহররম ১৪৪১

গাজীপুর সিটি নির্বাচন

জমজমাট প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা

শামসুল হক ভূঁইয়া, গাজীপুর

ডেইলি-বাংলাদেশ

প্রকাশিত : ০৭:৫৪ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই উৎসবমুখর পরিবেশে প্রচার-প্রচারণা জমে উঠছে। শহরের অলিগলি, বাজার, রাস্তার পাশে টাঙ্গানো হয়েছেন নির্বাচনী পোষ্টার।

এলাকায় মাইকিং, হ্যান্ডবিল দিয়ে প্রার্থী ও প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় রয়েছেন সমর্থক, নেতা-কর্মীরা। গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নির্মাণ করা হয়েছে নির্বাচনী ক্যাম্প। ঘরে ঘরে ঘুরে ভোটারদের কাছে ভোট চাইছেন, দোয়া চাইছেন প্রার্থীরা।

এদিকে সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে মনোনয়নবঞ্চিত মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খান দলীয় প্রার্থীর নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নেমেছেন। এতে করে আজমতপ ন্থী নেতাকর্মীদের মধ্যে নির্বাচনী আমেজ কিছুটা ফিরে এসেছে বলে কর্মীরা জানিয়েছেন। বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতারা প্রচারণার মাঠে দেখা গেছে। থেমে নেই বিভিন্ন দলীয় ও সতন্ত্র মেয়র প্রার্থীরাও। তারা দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মহানগরের আনাচে-কানাচে গণসংযোগ করে ভোট প্রার্থনা করছেন। তারা বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করছেন। এছাড়া কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীরাও নির্ঘুম প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন জয়ের জন্য।

শনিবার বিকেল থেকে টঙ্গী অঞ্চলের বিসিক পানির টাংকি এলাকায় এক পথসভার মধ্যদিয়ে প্রচারণা শুরু করেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের প্রচারণা। এসময় মেয়র প্রার্থী ছাড়াও বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইলিয়াস, থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রজব আলী, জেলা যুবলীগের নেতা খোরশেদ আলমসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। পরে তিনি বউ বাজার, গোপালপুর, টিএন্ডটি, মরকুন, শিলমুনসহ ৪৩, ৪৪ ও ৪৭ নম্বর ওযার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও পথসভা করে প্রচারণা চালিয়েছেন।

বিএনপি প্রার্থীর ধানের শীষের প্রচারণায় জেগেছে নেতাকর্মীরা

বিএনপি মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে মহানগরের টঙ্গীর দত্তপাড়া, বনমালা, রিয়া গামেন্টস এলাকা, তিস্তার গেট, নতুনবাজার, চম্পাকলি সিনেমাহল এলাকা, মধূমিতা রোড ও মিলগেট এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন। এসময় তার সাথে কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, মহিলাদল নেত্রী শিরিন সুলতানাসহ স্থানীয় নেতা-কর্মীরা গণসংযোগ করেছেন। এছাড়া মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় কেন্দ্রীয় নেতারা পৃথক পৃথক গণসংযোগ করেন। বিএনপি নেতাকর্মীদের অভিযোগ ছিল পুলিশ তাদের জেলা বিএনপি কার্যালয়ে পুলিশ মোতায়েন করে তাদের নির্বাচনী মাঠে আতংক সৃষ্টি করছেন।

ইসলামী ঐক্যজোটের মেয়র প্রার্থী মাওলানা. ফজলুর রহমান শনিবার চান্দনা চৌরাস্তা থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে সালনা বাজার, পোড়াবাড়ী, মাস্টার বাড়ী, রাজেন্দ্রপুর, বাংলাবাজার, পূবাইল বাজার,মীরের বাজার মেখডুবি বাজার, কলের বাজার, চামুচা  গনসংযোগ করেন। এসময়  তিনি বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ভোটারদের সাথে দেখা করে মতবিনিময়  করেন ও পথসভায় বক্তব্য রাখেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান, মাও. আবুল হাসানাত আমিনী, যুগ্মমহাসচিব মাও. আলতাফ হোসেন,  মাও. আবুল কাশেম, মাও. শেখ লোকমান হোসেন,মাও. জুনায়েদ গুলজার, মাও. মীর  হেদায়েত উল্লাহ গাজী এবং গাজীপুর জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিবসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এছাড়া বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পার্টির মেয়র প্রার্থী রুহুল আমিন, ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ’র নাসির উদ্দিন, ইসলামী ফ্রন্টের জালাল উদ্দিন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরিদ উদ্দিনসহ ওয়ার্ড কাউন্সিলররাও এলাকায় গণসংযোগ করে ভোট চাইছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ/আরআর