Alexa ‘বাংলাদেশ-ফিলিপাইন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা’বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ৭ ১৪২৬,   ২২ সফর ১৪৪১

‘বাংলাদেশ-ফিলিপাইন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা’বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত : ০৯:২২ পিএম, ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সোমবার | আপডেট: ০৯:২৩ পিএম, ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সোমবার

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত ‘বাংলাদেশ-ফিলিপাইন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা’বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার ডিসিসিআই  ভবনে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ ফিলিপাইন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (বিপিসিসিআই)-এর সহযোগিতায় আয়োজিত এ সেমিনারে ফিলিপাইনে ডিপার্টমেন্ট অফ ট্রেড অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি-এর সহকারী পরিচালক এগনেস পারপেচুয়া লেগাসপি-এর নেতৃত্বে কৃষি ও শাক-সবজি, চা, পানীয়, ঔষধ, প্রশাধনী এবং প্যাকেজিং মেশিনারীজ খাতের ১৫ সদস্যের ফিলিপাইনের একটি প্রতিনিধিদল আয়োজিত সেমিনার ও বিজনেস ম্যাচ-মেকিংয়ে যোগ দেন।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি ওসামা তাসীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিলিপাইনের চার্জ দি অ্যাফেয়ার্স লি মার্কো সি ভিদাল, ফিলিপাইনের কমার্শিয়াল এটাচি জেরিমায়া সি রাইয়েদ, বাংলাদেশ-ফিলিপাইন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সভাপতি ও ডিসিসিআই পরিচালক  ইঞ্জিনিয়ার আকবর হাকিম প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারের স্বাগত বক্তব্যে ঢাকা চেম্বারের সভাপতি ওসামা তাসীর বলেন, বাংলাদেশ ও ফিলিপাইনের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য অত্যন্ত সম্ভাবনাময় এবং ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দুদেশের বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ৬৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। তিনি বাংলাদেশের কৃষি ও খাদ্য উৎপাদন, প্যাকেজিং, তথ্য-প্রযুক্তি, ইলেকট্রনিক্স এবং পর্যটন খাতের উন্নয়নে ফিলিপাইনের অভিজ্ঞতা ও প্রযুক্তি ব্যবহার জন্য স্থানীয় উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানান। পাশাপাশি তৈরি পোষাক, ঔষধ ও সিরামিক খাতের উন্নয়নে বাংলাদেশর দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর জন্য ফিলিপাইনের ব্যবসায়ীদের প্রতিও তিনি আহ্বান জানান।

ফিলিপাইনের কমার্শিয়াল এটাচি জেরিমায়া সি রাইয়েদ বলেন, বাংলাদেশ ও ফিলিপাইনের বাণিজ্য বৃদ্ধিতে এধরনের বাণিজ্য আলোচনা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যকার বাণিজ্য যুদ্ধ আমাদের মত দেশগুলোর জন্য একদিকে যেমন সম্ভাবনার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে, অন্যদিকে ঝুঁকিও বেড়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএস/এমআরকে