বঙ্গবন্ধুর প্রধান নিরাপত্তা অফিসার যেভাবে নিহত হয়েছিলেন

ঢাকা, বুধবার   ০৫ অক্টোবর ২০২২,   ২১ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

বঙ্গবন্ধুর প্রধান নিরাপত্তা অফিসার যেভাবে নিহত হয়েছিলেন

স্বরলিপি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৯:০০ ১৫ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ০৯:০৩ ১৫ আগস্ট ২০২২

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুর প্রধান নিরাপত্তা অফিসারের দায়িত্বে ছিলেন কর্ণেল জামিল উদ্দিন আহমেদ। ১৫ আগস্ট ভোর ৫টায় বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান লাল টেলিফোনের মাধ্যমে কর্ণেল জামিল উদ্দিন আহমেদকে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর বাসভবন ঘেরাওয়ের কথা জানিয়েছিলেন। সঙ্গে সঙ্গে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর বাড়ির দিকে রওনা দিয়েছিলেন জামিল উদ্দিন আহমেদ। কিন্তু তিনি বঙ্গবন্ধুর বাসভবনে সেদিন পৌঁছাতে পারেননি। তার আগেই নিহত হন।

শেখ হাসিনা ও বেবী মওদুদের লেখা ১৫ আগস্ট ১৯৭৫-বইয়ের ২১ নম্বর পেজে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘পথে সোবহানবাগ মসজিদের সামনে ঘাতকরা তাকে নির্মমভাবে হত্যা করে। বঙ্গবন্ধুর জীবন রক্ষার জন্য তিনি আত্মহুতি দিয়েছেন এবং তার এ আত্মদান জাতি চিরকাল স্মরণ রাখবে।’

কর্ণেল জামিল উদ্দিন ১৯৩৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারিতে গোপালগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫২সালে ক্যাডেট হিসেবে পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দেন এবং ১৯৫৫ সালে কমিশন প্রাপ্ত হন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন পাকিস্তানে আটক ছিলেন। ১৯৭৩ সালে পাকিস্তান থেকে ফিরে আসার পর তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সচিবালয়ে যোগদান করেন এবং বঙ্গবন্ধুর নিরাপত্তার দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

উল্লেখ্য, কর্ণেল জামিলের আত্মত্যাগের প্রতি সম্মান জানিয়ে ২০০৯ সালে তাকে বীর-উত্তম খেতাবে ভূষিত করে সরকার। সেনাবাহিনীও কর্ণেল জামিল উদ্দিন আহমেদকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদমর্যাদা দিয়ে সম্মানিত করে। ১৯৯৭ সালে পরিবারের উদ্যোগে গঠন করা হয় কর্নেল জামিল ফাউন্ডেশন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এস

English HighlightsREAD MORE »