মাথাপিছু আয়ে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম স্থানে বাংলাদেশ: পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী
15-august

ঢাকা, সোমবার   ০৮ আগস্ট ২০২২,   ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯,   ০৯ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

মাথাপিছু আয়ে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম স্থানে বাংলাদেশ: পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:২৬ ৩০ জুন ২০২২   আপডেট: ১৩:৫৪ ৩০ জুন ২০২২

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী প্রফেসর ড. শামসুল আলম- ফাইল ফটো

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী প্রফেসর ড. শামসুল আলম- ফাইল ফটো

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী প্রফেসর ড. শামসুল আলম বলেছেন, সব অর্থনৈতিক ও সামাজিক সূচকে এগিয়ে যাচ্ছি আমরা। মাথাপিছু আয়ের ক্ষেত্রে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম স্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। অর্থনৈতিক অন্যান্য সূচকেও দক্ষিণ এশিয়ার অন্য দেশগুলোর তুলনায় এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ, যা প্রধানমন্ত্রীর সু-পরিকল্পনার মাধ্যমে সম্ভব হয়েছে।

বুধবার নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের (ইএসডিএম) উদ্যোগে ‘বিশ্ব পরিবেশ দিবস-২০২২ এবং বিভাগের ১০ বছর পূর্তি’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করা হয়েছে, যা প্রধানমন্ত্রীর একটি ঐতিহাসিক অর্জন। স্ব-অর্থায়নে পদ্মাসেতু তৈরি করা হয়েছে যা আমাদের আত্মপ্রত্যয়ের প্রতীক।

তিনি আরো বলেন, ‘রূপকল্প ২০২০-৪১ বাস্তবায়নসহ পরিবেশ রক্ষায় নানা ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। পরিবেশ রক্ষায় ডেল্টাপ্ল্যান বর্তমান সরকারের অন্যতম একটি দূরদর্শী সিদ্ধান্ত।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারের তৈরি পরিবেশ বিষয়ক রূপকল্প ও উদ্যোগ নিয়ে পড়াশোনা করতে হবে। দেশের পরিবেশ রক্ষায় নিজেদের তৈরি করতে হবে। তাহলেই আমরা বাসযোগ্য একটি দেশ পাবো।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইএসডিএম বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ মহিনুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নোবিপ্রবির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. দিদার-উল-আলম। মূখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) প্রফেসর ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নোবিপ্রবির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবদুল বাকী, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হানিফ মুরাদ প্রমুখ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ/এমআরকে

English HighlightsREAD MORE »