স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে, মেয়ের বাবার সঙ্গে নয়: শ্রীলেখা

ঢাকা, রোববার   ২৬ জুন ২০২২,   ১২ আষাঢ় ১৪২৯,   ২৬ জ্বিলকদ ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছে, মেয়ের বাবার সঙ্গে নয়: শ্রীলেখা

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২০ ২২ জুন ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সরব টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। বিভিন্ন সময় ফেসবুক স্ট্যাটাসে ব্যক্তিজীবনের নানা বিষয় তুলে ধরেন তিনি। মাঝেমধ্যে সাবেক স্বামীর কথা ভেবে মন খারাপের স্ট্যাটাস দেন তিনি।

২০০৩ সালের ২০ নভেম্বর শিলাদিত্য স্যান্নালকে বিয়ে করেছিলেন শ্রীলেখা। ১০ বছর সংসার করে ২০১৩ সালে বিবাহবিচ্ছেদের পথে হাঁটেন তারা। বিচ্ছেদ হলেও তাদের একটি কন্যা আছে। তার নাম ঐশী। মেয়ে এখন মায়ের কাছেই থাকে। তবে বাবার সঙ্গেও যোগাযোগ নিয়মিত। সন্তানের কথা ভেবে শ্রীলেখা ও শিলাদিত্যও তাদের মধ্যে সুন্দর সম্পর্ক বজায় রেখেছেন।

গত ১৯ জুন ছিল বিশ্ব বাবা দিবস। আর এই দিবসে শ্রীলেখা সাবেক স্বামীকে নিয়ে মুখ খুললেন। বললেন নানা কথা ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের সঙ্গে। সেখান থেকে চুম্বক অংশ পাঠকের জন্য তুলে ধরা হলো।

শ্রীলেখা বলেন, আমি কোনোদিনই একা মেয়েকে বড় করিনি। ২০১৩ সালে আমাদের আইনি বিচ্ছেদ হয়। তার আগের প্রায় দেড় বছর আলাদা থাকতাম। কোনোদিন মেয়েকে নিয়ে টানাটানি করিনি। সন্তানকে বড় করছি আমরা একসঙ্গেই। বাবা-মায়ের আলাদা থাকা নিয়ে কোনো দিন কান্নাকাটিও করেনি। বাবা-মায়ের আলাদা থাকাটাকে নিজের মতো করেই মানতে শিখেছে মেয়েটা।

তিনি আরো বলেন, কোনোদিন ওকে দেখিনি মন খারাপ করেছে, বা বলেছে কেন মা-বাবা একসঙ্গে থাকে না। নিজের মনে মনে যদি কষ্ট পেয়েও থাকে, নিজের মতো বুঝিয়েছে নিজেকে। সপ্তাহের চার দিন তার কাছে, তিন দিন বাবার কাছে থাকে মেয়ে। এই কয়েক দিন আগেই বাবার সঙ্গে পাহাড় ঘুরে এসেছে মেয়ে। বাবা বাড়িতে নামিয়ে দিয়ে গিয়েছেন আবার। কোনোদিন ইচ্ছা হলে একসঙ্গে খেতেও গিয়েছেন রেস্তরাঁয়।

এ ছাড়াও স্বামীর সঙ্গে আলাদা থেকেও মেয়েকে বড় করা নিয়ে তিনি বলেন, আমি একার কৃতিত্ব নিতেই পারব না। কারণ, মেয়েকে আমি একা মানুষ করিনি। ওকে বড় করার আশি শতাংশ কৃতিত্ব শিলাদিত্যর। এই বিশেষ দিনটা শুধুমাত্র শিলাদিত্যরই হয়ে থাক।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস

English HighlightsREAD MORE »