পদ্মাসেতু হয়ে ২৩ রুটে চলবে বিআরটিসির ৬৫ বাস

ঢাকা, রোববার   ২৬ জুন ২০২২,   ১২ আষাঢ় ১৪২৯,   ২৬ জ্বিলকদ ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

পদ্মাসেতু হয়ে ২৩ রুটে চলবে বিআরটিসির ৬৫ বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৪০ ২১ জুন ২০২২  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

আগামী ২৫ জুন পদ্মাসেতুর উদ্বোধনকে কেন্দ্র করেছে প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন (বিআরটিসি)। উদ্বোধনের পর দিন থেকে থেকেই দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের নতুন-পুরনো ২৩ রুটে বাস নামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি। গতকাল সোমবার এসব রুট চূড়ান্ত করা হয়। 

এ বিষয়ে বিআরটিসির চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম জানান, পদ্মাসেতুমুখী দক্ষিণাঞ্চলের ২৩টি রুটে বিআরটিসির ৬৫টি বাস চলবে। এটি প্রাথমিক প্রস্তুতি। পরবর্তীতে চাহিদা অনুযায়ী রুট পুনর্বিন্যাস ও বাসের সংখ্যা বাড়ানো হতে পারে।

জানা গেছে, পদ্মাসেতু হয়ে বিআরটিসির যে ২৩টি রুটে বাস চলবে তার কিছু ছাড়বে ঢাকার গুলিস্তান থেকে। এছাড়া খুলনা যেতে পদ্মা সেতু হয়ে গোপালগঞ্জ ও ফকিরহাট ভায়া হিসেবে বাস সার্ভিস দেবে বিআরটিসি। একই সঙ্গে গুলিস্তান থেকে যশোরের বেনাপোলে গাড়ি যাবে পদ্মাসেতু হয়ে। মাঝপথে ভাঙা, গোপালগঞ্জ, খুলনা ও যশোর পাড়ি দেবে। গুলিস্তান থেকে সাতক্ষীরা রুটে পদ্মাসেতু হয়ে ভাঙা, গোপালগঞ্জ ও খুলনা ভায়া হিসেবে বাস চলবে। আবার বরিশালগামী বাস গুলিস্তান থেকে পদ্মাসেতু হয়ে ভাঙা, টেকেরহাট, মোস্তফাপুর ও গৌরনদী ভায়া ধরবে। গুলিস্তান থেকে শরীয়তপুর যাবে আরেকটি সার্ভিস। মাঝপথে পদ্মাসেতু, ভাঙা ও জাজিরা পড়বে।

এছাড়া গুলিস্তান থেকে যশোর যাওয়া যাবে বিআরটিসির বাসে। এ জন্য পদ্মাসেতু, ভাঙা, ভাটিয়াপাড়া, নড়াইল ও যশোর রুট ধরা হয়েছে। মিরপুর-১২ নম্বর থেকেও বরিশাল যাবে বিআরটিসির বাস। ফুলবাড়িয়া, সায়েদাবাদ, ভাঙা, টেকেরহাট, মোস্তফাপুর ও গৌরনদী পড়বে চলতি পথে। ঢাকার আবদুল্লাহপুর থেকে মাদারীপুর যাওয়া যাবে শিবচর, টেকরহাট ও মোস্তফাপুর হয়ে। আবদুল্লাহপুর থেকে পয়সারহাট যেতে পদ্মা সেতু-ভাঙা-মোস্তফাপুর-গৌরনদী-আগৈলঝরা রুট করা হয়েছে।

নরসিংদী থেকে চরমুগুরিয়া যাওয়া যাবে পদ্মাসেতু দিয়ে। এজন্য গুলিস্তান, মাওয়া, পদ্মা সেতু, শিবচর ও মাদারীপুর রুট ধরা হবে। নরসিংদী থেকে কাশিয়ানী যাওয়া যাবে বিআরটিসিতে। এজন্য গুলিস্তান, মাওয়া ও মুকসুদপুর রুট থাকছে ভায়া হিসেবে। এছাড়া ঢাকা থেকে শরীয়তপুর যেতে মাওয়া, পদ্মাসেতু ও জাজিরা আরেকটি রুট ধরা হয়েছে। ঢাকা থেকে কুয়াকাটাও যাওয়া সম্ভব সরকারি এ বাসে। এজন্য পদ্মাসেতু, ভাঙা, বরিশাল ও পটুয়াখালী রুট ব্যবহার করা হবে।

ঢাকা খেকে খুলনা যেতে পদ্মাসেতু, ভাঙা, গোপালগঞ্জ, ফকিরহাট ও কাটাখালী রুট ধরা হয়েছে। ঢাকা থেকে যশোর আরেকটি রুট পদ্মা সেতু, ভাঙা, ভাটিয়াপাড়া, কালনাঘাট, লোহাগড়া ও নড়াইল পথ ধরবে। ঢাকা থেকে পিরোজপুর যেতে বিআরটিসির একটি সার্ভিস চলবে পদ্মাসেতু, ভাঙা, মুকসুদপুর, গোপালগঞ্জ, টুঙ্গিপাড়া ও নাজিরপুর ধরে। গুলিস্তান থেকে গোসাইরহাট রুট ধরা হয়েছে ভায়া শরীয়তপুর ও ডামুড্যা বাইপাস।

এছাড়া বরিশাল থেকে ঢাকায় পদ্মাসেতু হয়ে আরেকটি সার্ভিস দেওয়া হয়েছে। মাঝপথে ভাঙা, পদ্মাসেতু ও যাত্রাবাড়ী পড়বে। কুয়াকাটা থেকে ঢাকা আসতে চাইলে পটুয়াখালী, বরিশাল, ভাঙা, পদ্মাসেতু ও যাত্রাবাড়ী অতিক্রম করতে হবে। পিরোজপুরের ভা-ারিয়া থেকে ঢাকায় আসা যাবে ঝালকাঠি, বরিশাল, ভাঙা ও পদ্মাসেতু হয়ে। পটুয়াখালীর বাউফল থেকে ঢাকা আসতে বরিশাল, পদ্মাসেতু ও যাত্রাবাড়ী ধাকবে ভায়া হিসেবে। এদিকে ঢাকা থেকে কুয়াকাটা আরেকটি সার্ভিসের রুট পড়বে ভায়া পদ্মাসেতু, ভাঙা, বরিশাল ও পটুয়াখালী নামে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ

English HighlightsREAD MORE »