মেক্সিকোর সঙ্গে রাজনৈতিক বৈঠকের ওপর জোর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর

ঢাকা, সোমবার   ১৮ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৩ ১৪২৮,   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মেক্সিকোর সঙ্গে নিয়মিত রাজনৈতিক বৈঠকের ওপর জোর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪১ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

মেক্সিকোর ডেপুটি ফরেন মিনিস্টার কারমেনের সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম- ছবি: সংগৃহীত

মেক্সিকোর ডেপুটি ফরেন মিনিস্টার কারমেনের সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম- ছবি: সংগৃহীত

মেক্সিকোর সঙ্গে নিয়মিত রাজনৈতিক বৈঠকের ওপর জোর দিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

সোমবার মেক্সিকোতে দেশটির ডেপুটি ফরেন মিনিস্টার কারমেন মোরেনো টোসানোর সঙ্গে বৈঠক করেন প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার। এ সময় প্রতিমন্ত্রী রাজনৈতিক বৈঠকের ওপর জোর দেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, মেক্সিকোর ডেপুটি ফরেন মিনিস্টার কারমেনের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ঘণ্টাব্যাপী দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। 

প্রতিমন্ত্রী ডেপুটি ফরেন মিনিস্টারকে বলেন, ২০১৫ সালের দুই দেশের মধ্যে ফরেন অফিস কনসালটেশন চুক্তি সই হয়েছিল এবং তার অধীনে নিয়মিত বৈঠক করতে চায় ঢাকা।

জবাবে কারমেন জানান, রাজনৈতিক বৈঠকে দেশটির আগ্রহ রয়েছে। এছাড়া বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা বাড়াতে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন তারা।

এদিকে সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে মেক্সিকোর স্বাধীনতার ২০০ বছর পূর্তি উৎসবে যোগ দেন প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার। স্বাধীনতা উৎসবে যোগ দেওয়ায় বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে ম্যানুয়েল লোপেজ। উৎসবের দেওয়া ভাষণে তিনি বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানান। এছাড়া বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর একটি কন্টিনজেন্ট ও সাংস্কৃতিক দল উৎসবে অংশগ্রহণ করায় তিনি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

দেশটির ডেপুটি ফরেন মিনিস্টার জানান, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর সমাপনী অনুষ্ঠানে মেক্সিকোর একটি সামরিক দল অংশগ্রহণ করবে। কারমেন নারীর ক্ষমতায়নে অসাধারণ সাফল্যের জন্য বাংলাদেশের প্রশংসা করেন। এ সময় প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার কারমেনকে সাম্প্রতিক বছরগুলোয় শুধু নারীর ক্ষমতায়নে নয়, এমডিজি এবং এসডিজি অর্জনে অসাধারণ সাফল্য সম্পর্কে জানান।

প্রতিমন্ত্রী কূটনৈতিক ও অফিসিয়াল পাসপোর্টের ভিসা ছাড়ের জন্য দুই দেশের মধ্যে সমঝোতা চুক্তির প্রাথমিক সমাপ্তির ওপর জোর দেন এবং স্প্যানিশ ভাষা শেখাসহ উভয় দেশের কূটনৈতিক প্রশিক্ষণ একাডেমির মধ্যে অংশগ্রহণের প্রস্তাব দেন। শাহরিয়ার আলম রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সমর্থন করায় দেশটির প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ