হিট-শকে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ৪২ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৮,   ০৫ শাওয়াল ১৪৪২

হিট-শকে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ৪২ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২১ ১৮ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ২০:১৪ ১৯ এপ্রিল ২০২১

পরিদর্শনকালে কৃষিমন্ত্রীসহ অন্যরা। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

পরিদর্শনকালে কৃষিমন্ত্রীসহ অন্যরা। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, দেশজুড়ে হিট-শকে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সহায়তার জন্য ৪২ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ এবং সহায়তা কর্মসূচিসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। 

তিনি আরো বলেন, ভবিষ্যতে যাতে কৃষকদের এমন বিপর্যয়ের মুখোমুখি না হতে হয় সেজন্য উচ্চ তাপমাত্রা সহনশীল এবং রোগ ও পোকামাকড় প্রতিরোধক উচ্চ ফলনশীল ধানের জাত উদ্ভাবনের বিষয়েও গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

রোববার গাজীপুরে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) গবেষণা মাঠ পরিদর্শনের সময় তিনি এসব কথা বলেন। অনেকটা আকস্মিকভাবেই ব্রি’র গবেষণা মাঠ পরিদর্শন করেন মন্ত্রী।

অতিরিক্ত গরমে মানুষ যেমন হিটস্ট্রোক করে, তীব্র দাবদাহে ধানগাছও এমনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়, যেটাকে হিট-শক বা হিট ইনজুরি বলে। গত ৪ এপ্রিল দেশের বিভিন্ন জেলায় এ হিট-শকে বোরো ধানের ক্ষতি হয়েছে।

পরিদর্শনকালে খাদ্য নিরাপত্তায় ব্রি’র বিজ্ঞানীদের প্রস্তুতি ও গবেষণা অগ্রগতি দেখে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন এবং তাদের অভিনন্দন জানান কৃষিমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, বৈশ্বিক আবহাওয়া পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব বুঝতে পেরে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট ২০১৩ সাল থেকে উচ্চ তাপমাত্রা সহিষ্ণু জাত উদ্ভাবনের জন্য গবেষণা শুরু করে। উচ্চ তাপমাত্রা সহিষ্ণু এন২২ (ঘ২২) জাতের সঙ্গে বোরো মৌসুমের জনপ্রিয় আধুনিক জাত ব্রি ধান-২৮-এর সংকরায়ণ করে মার্কার এসিসটেড ব্যাকক্রসিং পদ্ধতির মাধ্যমে একটি অগ্রগামী সারি নির্বাচন করেছে, যা মধ্যম মাত্রার উচ্চ তাপমাত্রা সহনশীল।

কৃষিমন্ত্রীর পরিদর্শনকালে বিএডিসি’র চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, ব্রি’র পরিচালক (গবেষণা) ড. কৃষ্ণপদ হালদার, পরিচালক (প্রশাসন ও সাধারণ পরিচর্যা) ড. মো. আবু বকর ছিদ্দিক এবং বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানরা উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/এইচএন/আরএইচ