৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১২ ১৪২৭,   ১২ রজব ১৪৪২

৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫৮ ২৭ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৯:১১ ২৭ জানুয়ারি ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন-পিআইডি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন-পিআইডি

বাংলাদেশ ৩ কোটি ৪০ লাখ ভ্যাকসিন পাবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে করোনা ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ভ্যাকসিন আনার জন্য চুক্তি করেছি এবং ভ্যাকসিন প্রয়োগের যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছি। আমাদের দুর্ভাগ্য যে, কিছু কিছু মানুষ আছে যারা সবকিছুতেই নেতিবাচক মনোভাব পোষণ করে থাকে। তারা মানুষকে সাহায্য না করে উল্টো তদের ভেতরে ভয়ভীতি ঢুকানোর চেষ্টা করে। এরা ‘সবকিছু ভালো লাগে না’ রোগে ভোগে।

তিনি বলেন, এরা ভ্যাকসিন আসবে কি, আসবে না? দাম বেশি হলো কেন? দিলে কি হবে- এসব কথা বলে। তবে তাদেরকেও ধন্যবাদ দিচ্ছি একারণে যে, তারা যত সমালোচনা করেছে আমরা তত দ্রুত কাজ করার অনুপ্রেরণা পেয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সময়মতো ভ্যাকসিন কিনতে পেরেছি, আনতে পেরেছি। আশা করছি আল্লাহর রহমতে আমরা এর মাধ্যমে দেশের মানুষকে সুরক্ষা দিতে সক্ষম হব। মানুষের মৌলিক অধিকার পূরণ করা আমাদের কর্তব্য। আমরা চেষ্টা করি মানুষের সেবা করে যেতে।

বক্তব্যের পর প্রধানমন্ত্রী টিকা প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরই ৫ জনকে করোনাভাইরাসের টিকা দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সেই প্রথম পাঁচজনের ওপর টিকার প্রয়োগ সরাসরি প্রত্যক্ষ করেন। প্রথম ভ্যাকসিন নেন রুনু ভেরোনিকা কস্তা। এরপর আরো ৪ জনকে টিকা দেয়া হয়। এসময় তাদের প্রত্যেককে অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রসঙ্গত, গত ২০ জানুয়ারি ভারত সরকারের উপহার দেয়া অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি কোভিশিল্ড দেশে পৌঁছায়। সোমবার দেশে আসে সরকারের কেনা তিন কোটি ভ্যাকসিনের প্রথম ৫০ লাখ ডোজ। এর মধ্যে ৬০ লাখ দেয়া হবে প্রথম মাসে, দ্বিতীয় মাসে ৫০ লাখ, তৃতীয় মাসে আবার ৬০ লাখ। প্রথম মাসে যারা পাবেন তাদের দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হবে তৃতীয় মাসে। চুক্তি অনুযায়ী বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ঢাকা থেকে দেশের ৬৪ জেলার সিভিল সার্জনের কাছে সব টিকা পৌঁছে দেবে।

বৃহস্পতিবার টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ও টিকাদানের সার্বিক অভিজ্ঞতা যাচাই করতে পরীক্ষামূলক টিকা প্রয়োগ করা হবে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালসহ রাজধানীর পাঁচ হাসপাতালে। এসব হাসপাতালের ৪০০-৫০০ স্বাস্থ্যকর্মীকে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত টিকা দেয়া হবে। পরে তাদের সাত দিন পর্যবেক্ষণ করবে সরকার। সে পর্যবেক্ষণের ফল অনুযায়ী সারাদেশে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ/আরএইচ/এইচএন