‘প্রকল্পে অযৌক্তিক ব্যয় পরিহার করতে হবে’

ঢাকা, সোমবার   ০৮ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ২৩ ১৪২৭,   ২৩ রজব ১৪৪২

‘প্রকল্পে অযৌক্তিক ব্যয় পরিহার করতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৫ ২১ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৯:২১ ২২ জানুয়ারি ২০২১

শ ম রেজাউল করিম। ফাইল ছবি

শ ম রেজাউল করিম। ফাইল ছবি

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রকল্পে কোনো ধরনের অযৌক্তিক ব্যয় করা যাবে না। কেনা-কাটাসহ অন্যান্য প্রক্রিয়ায় অস্বাভাবিক কিছু করা যাবে না।

তিনি বলেন, প্রকল্প প্রস্তাবে বাজারমূল্যের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ দাম নির্ধারণ করতে হবে। রাষ্ট্রের অর্থ অপব্যয়ের জন্য নয়। প্রকল্প নিয়ে কোনো নেতিবাচক প্রচারণায় আমরা থাকতে চাই না।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সচিবালয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে মৎস্য অধিদফতর এবং বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত প্রকল্পসমূহের অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সভাপতির বক্তব্যে প্রকল্প পরিচালকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, আপনারা অনিয়ম, অস্বচ্ছতা বা দুর্নীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হবেন না। প্রকল্পগুলো নিজেরা ধারণ করার চেষ্টা করবেন। গতানুগতিকভাবে দফতরে বসে কাজ না করে মাঠে যেতে হবে। আর শুধু মাঠ পরিদর্শন করলেই হবে না বরং মাঠে থাকতে হবে। একই সঙ্গে মাঠ পরিদর্শনে প্রাপ্ত বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। রাষ্ট্র নানাভাবে আপনাদের সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। ফলে রাষ্ট্রের প্রতি দায়িত্ববোধের জায়গা কোনোভাবেই বিস্মৃত হওয়া উচিত নয়।

তিনি আরো বলেন, আপনাদের কাছ থেকে পরিচ্ছন্ন সেবা প্রত্যাশা করি। আন্তরিকতা ও একাগ্রতা প্রত্যাশা করি। প্রকল্পের ধীর গতি কোনোভাবেই কাঙ্ক্ষিত নয়। স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা, নিয়ম অনুসরণ করা এবং আইন প্রতিপালন করার জন্য কাজের সমন্বয় থাকতে হবে। 

শ ম রেজাউল করিম বলেন, আপনাদের কাজের সাফল্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় ও আওতাধীন দফতর-সংস্থায় যে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে, তা যেন ম্রিয়মাণ না হয়। সে দায়িত্বও আপনাদের, এ ব্যাপারে আপনারা যত্নশীল থাকবেন। কাজের প্রতি আন্তরিক ও নিষ্ঠাবান থাকবেন এবং সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ, বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান কাজী হাসান আহমেদ, মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার প্রমুখ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত মন্ত্রণালয়ের ১টি, মৎস্য অধিদফতরের ৮টি এবং বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের ২টিসহ মোট ১১টি প্রকল্পের ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/এইচএন/এমকেএ