বিএসএমআরএএইউ এবং এয়ারবাসের মাঝে সমঝোতা চুক্তি

ঢাকা, সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৪ ১৪২৭,   ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বিএসএমআরএএইউ এবং এয়ারবাসের মাঝে সমঝোতা চুক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৩৫ ৩০ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:৩৬ ৩০ নভেম্বর ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বাংলাদেশের প্রথম এরোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন ও এ্যরোস্পেস ইউনিভার্সিটির (বিএসএমআরএএইউ) সঙ্গে এয়ারবাসের একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

রোববার উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই হয়। এদিন এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এ চুক্তির ফলে বিএসএমআরএএইউ’র  শিক্ষার্থীদের আন্তর্জাতিক মানের পাইলট প্রশিক্ষণ ও রক্ষণাবেক্ষণমূলক ইঞ্জিনিয়ারিং প্রশিক্ষণ প্রদান করবে এয়ারবাস। 

এছাড়া এ চুক্তির ফলে বাংলাদেশের এভিয়েশন কাঠামোর সম্প্রসারণের দিকে দৃষ্টি দেবে এয়ারবাস। এতে দেশের চলমান অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা আরো ত্বরান্বিত হবে।

এ বিষয়ে এয়ারবাসের সাউথ এশিয়া অঞ্চলের প্রেসিডেন্ট রেমি মিল্লার্‌ড বলেন, বাংলাদেশের এ্যরোস্পেস শিল্পের সার্বিক আধুনিকায়ন ও বিকাশের সহায়তা করতে এয়ারবাস সদা প্রস্তুত।

তিনি আরো বলেন, প্রতিভাবনাদের পৃষ্ঠপোষকতা এবং নতুন উদ্ভাবনকে সহায়তা করার জন্য বিএসএমআরএএইউ-এর সঙ্গে এক হয়ে কাজ করতে পেরে আমরা গর্বিত। এই সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে এয়ারবাস তাদের অত্যাধুনিক প্রযুক্তিগত অভিজ্ঞতা ও প্রশিক্ষণের দক্ষতা বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য সহজে গ্রহণ করার ব্যবস্থা করবে।

এয়ারবাসের এই ট্রেনিং প্রোগ্রামের মধ্যে স্নাতক ও স্নাতক পরবর্তী ধাপের যেসব শিক্ষার্থী পাইলট ও রক্ষণাবেক্ষণ ইঞ্জিনিয়ার হতে উৎসাহী, তারা সবাই অন্তর্ভুক্ত। এয়ারবাস পড়াশোনার উপকরণ ও সিলেবাস সরবরাহ করবে, তাদের প্রশিক্ষকরা ক্লাস নিবেন। এছাড়াও এয়ারবাস বছরে ৫টি ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা করবে।

এ প্রসঙ্গে বিএসএমআরএএইউ'র প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য এয়ার ভাইস মার্শাল এএইচএম ফজলুল হক বলেন, এ্যরোস্পেস শিল্পের একটি আন্তর্জাতিক পথপ্রদর্শক হিসেবে নতুন প্রতিভাবানদের প্রশিক্ষণ দেয়ার ক্ষেত্রে এয়ারবাসের যথেষ্ট দক্ষতা রয়েছে। 

চলতি বছরের জানুয়ারিতে বিএসএমআরএএইউ তাদের প্রথম ব্যাচ শুরু করে। এভিয়েশন ক্ষেত্রের উন্নতি দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর