ক্যান্সারে আক্রান্ত পুতিন, ক্ষমতা ছাড়বেন নতুন বছরে!

ঢাকা, সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৭,   ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

ক্যান্সারে আক্রান্ত পুতিন, ক্ষমতা ছাড়বেন নতুন বছরে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০১ ২২ নভেম্বর ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, দেখা দিয়েছে পারকিনসন রোগ। এ কারণে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে তার জরুরি অপারেশন করতে হয়েছে। রুশ রাষ্ট্রবিজ্ঞানী, ইতিহাসবিদ ও বিশ্লেষক ভ্যালেরি সলোভেইর বরাত দিয়ে এমন চাঞ্চল্যকর খবর দিয়েছে যুক্তরাজ্যের খ্যাতিমান গণমাধ্যম দ্য সান। তাতে আরো বলা হয়, আসছে নতুন বছরের শুরুতেই ক্ষমতা ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন পুতিন।

এর আগে চলতি মাসের শুরুর দিকে ভ্যালেরি সলোভেই জানিয়েছিলেন, পারকিনসন রোগে ভুগছেন পুতিন। পুতিনের ক্যান্সারের চিকিৎসা চলছে বলে আগেই জানানো হয়েছে তাকে। ভ্যালেরির দাবি, ক্রেমলিনের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত হওয়া উচ্চ পর্যায়ের সূত্র এসব বিষয় জানিয়েছে।

পুতিনের বয়স ৬৮ বছর উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, এ বয়সে এসে দুই ধরনের স্বাস্থ্য সমস্যায় পড়েছেন পুতিন। তা হলো, সাইকো-নিউরোলজিক্যাল প্রকৃতি (পারকিনসন) এবং ক্যান্সার। প্রথম ডায়াগনোসিসে পারকিনসন এবং দ্বিতীয় ডায়াগনোসিসে ক্যান্সার ধরা পড়ে।

গত ফেব্রুয়ারিতে পুতিনের অপারেশন হয়েছে উল্লেখ করলেও তার কারণ জানাননি ভ্যালেরি। অপর এক রুশ সূত্রের দাবি, পাকস্থলির ক্যান্সারের অপারেশন হয়েছে পুতিনের। তখন প্রেসিডেন্ট পুতিনের কর্মসূচিতে ফাঁক রাখা হয়েছিল, অপারেশন শেষে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি সেইন্ট পিটার্সবুর্গে প্রকাশ্যে এসে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পার্ঘ্য দেন তিনি।

এদিকে, ক্রেমলিনের পর্যবেক্ষকরা জানান, পুতিনের সম্প্রতি ফুটেজ পর্যালোচনায় তার পারকিনসন রোগের লক্ষণের বিষয়টি উড়িয়ে দেয়া যায় না। টেলিভিশনে সরাসরি প্রচারিত এক মিটিংয়ে কাশির কারণে একটি বাক্য শেখ করতে বেগ পেতে দেখা যায় পুতিনকে।

এরপর পুতিনের ক্যান্সারের খবর বেরুলে চলতি সপ্তাহের শুরুতে তার স্বাস্থ্যগত কোনো সমস্যা নেই বলে জানায় ক্রেমলিন। অবশ্য গতকাল শুক্রবারও বিশ্লেষকরা জানান, পুতিনকে ক্ষমতা ছাড়তে তার সাবেক জিমন্যাস্ট গ্লামারাস বান্ধবী অ্যালিনা কাবায়েভাও (৩৭) অনুরোধ করছেন।

আসছে বছর পুতিন ক্ষমতা ছাড়লে তার উত্তরসূরি হবেন মেয়ে ক্যাটেরিনা টিকোনোভা (৩৪)। এমনটা জানিয়ে ভ্যালেরি বলেন, সেভাবেই মেয়েকে গড়ে তুলছেন পুতিন। রুশ সাবেক হাই-কিকিং ড্যান্সার ক্যাটেরিনা বর্তমানে নতুন কৃত্রিম গোয়েন্দা কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। সবার আগে রাশিয়ার তৈরি করোনার টিকা ‘স্পুটনিক ৫’ প্রয়োগ করা হয় পুতিনকন্যা ক্যাটেরিনার শরীরে।

তবে নেতৃত্বের ক্ষেত্রে বিকল্প বা ফ্রন্টরানার হিসেবে আরো দু’জনের নাম শোনা যাচ্ছে। তারা হলেন- সাবেক প্রেসিডেন্ট দমিত্রি মেদভেদেভ (৫৫) ও কৃষিমন্ত্রী দমিত্রি পাত্রুসেভ (৪৩)।

পুতিন ২০ বছরে এসে ক্ষমতার ইতি ঘটানোর পরিকল্পনা করেছেন বলে বলা হচ্ছে। এ কারণেই তাকে আজীবন সিনেটর রাখার একটি খসড়া প্রস্তাব পাসের জন্য তোলা হচ্ছে। এর ফলে ক্ষমতা ছাড়ার পর সিনেটর থাকতে পারলে মৃত্যু পর্যন্ত আইনগত দায়মুক্ত থাকবেন তিনি।

বলা হচ্ছে, গত বছরের সেপ্টেম্বরে রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে সরকার-বিরোধী বড় ধরনের একটি বিক্ষোভ হয়। তাতে তৎকালীন খাবারোভস্ক ক্রাই অঞ্চলের গভর্নর ও বিরোধী দলীয় সদস্য সের্গেই ফারগাল ও ভ্যালেরি সলোভেই অংশ নেন। তারা দুজনসহ আরো কয়েক ডজন মানুষকে আটক করা হয়।

পাবলিক রিলেশন্স ডিপার্টমেন্ট মস্কো স্টেট ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনের সাবেক প্রধান ভ্যালেরি সলোভেই। রুশ অভিজাত বিশ্ববিদ্যালয়ের সবচেয়ে অভিজাতদের একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয় তাকে। গত বছর পদ ছাড়ার পর রাজনৈতিক কারণে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ