মুখে থাকলেও বাস্তবে নেই চট্টগ্রাম বিএনপি

ঢাকা, সোমবার   ২৩ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১০ ১৪২৭,   ০৬ রবিউস সানি ১৪৪২

মুখে থাকলেও বাস্তবে নেই চট্টগ্রাম বিএনপি

চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৩২ ২১ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:০৯ ২১ নভেম্বর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চট্টগ্রাম বিএনপি মুখে মুখে থাকলেও সাংগঠনিক কোনো কার্যক্রমে নেই দলটি। দুই বছর আগে মহানগর কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে। উত্তর জেলায় কমিটি নেই প্রায় এক যুগ ধরে। দক্ষিণ জেলায় আহ্বায়ক কমিটি হলেও নেই কোনো তৎপরতা।

নগর বিএনপির এক নেতা বলেন, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে ১৫ বছরেও জনগণকে পাশে নিয়ে আন্দোলন করতে পারেনি চট্টগ্রাম বিএনপি। একটি মহল আছে, যারা শুধু নিজেদের নিয়ে চিন্তা করে। তাদের এসব কর্মকাণ্ডে বিএনপির প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলেছে জনগণ।

উত্তর জেলা বিএনপির দুই সাবেক সভাপতি গোলাম আকবর খোন্দকার ও গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর অনুসারীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব বেশ পুরনো। আর সেই দুই নেতার অনুসারী দিয়ে ২০১৪ সালের এপ্রিলে গঠন করা হয় উত্তর জেলা বিএনপির ৯৩ সদস্যের কমিটি। এতে গোলাম আকবর খোন্দকারের অনুসারী হিসেবে পরিচিত আসলাম চৌধুরীকে আহ্বায়ক ও গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর অনুসারী হিসেবে পরিচিত আব্দুল্লাহ আল হাসানকে সদস্য সচিব করা হয়।

সেই কমিটিকে ৪৫ দিনের মধ্যে থানা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে নতুন কমিটি গঠনের নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু পুরনো দ্বন্দ্বের কারণে উপজেলা পর্যায়ে গঠিত হয় পাল্টাপাল্টি কমিটি।

নতুন কমিটি না হওয়ায় তৃণমূলে পুরোপুরি স্থবির হয়ে পড়েছে সাংগঠনিক কার্যক্রম। এ নিয়ে দলের তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা চরম ক্ষুব্ধ।

বোয়ালখালী উপজেলার ভেঙে দেয়া কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসান মুরাদ মামুন আক্ষেপ করে বলেন, দল পুনর্গঠন ও নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করতে মহানগরের একজন বিএনপি নেতাকে নিয়ে এসে জেলা কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে। সেই কমিটি দায়িত্ব নিয়েই উপজেলা, পৌরসভাসহ অন্যান্য কমিটি ভেঙে দিয়েছে। তিন মাসের মধ্যে কমিটিগুলো করে সম্মেলন আয়োজনের কথা ছিল। কিন্তু এক বছরে একটি কমিটিও পুনর্গঠন করা হয়নি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর/এইচএন