দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর পৌনে ৬ কিলোমিটার

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৪ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১০ ১৪২৭,   ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর পৌনে ৬ কিলোমিটার

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০৮ ২১ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:৪১ ২১ নভেম্বর ২০২০

বসল পদ্মাসেতুর ৩৮তম স্প্যান -ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বসল পদ্মাসেতুর ৩৮তম স্প্যান -ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পদ্মাসেতুর ১ ও ২ নম্বর পিলারের উপর বসল ৩৮তম ‘১-এ’ স্প্যান। শনিবার দুপুরে স্প্যানটি বসানো হয়। এতে দৃশ্যমান হলো সেতুর ৫ হাজার ৭০০ মিটার বা পৌনে ৬ কিলোমিটার।

এ তথ্য নিশ্চিত করে পদ্মাসেতুর প্রকৌশলী মো. হুমায়ুন কবির জানান, শনিবার সকাল ৯টার দিকে মাওয়া কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে স্প্যানটি পিলারের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। কোনো কারিগরি জটিলতা না থাকায় স্প্যানটি পিলারের উপর বসানো হয়।

এর আগে, ১২ নভেম্বর ৩৭তম স্প্যান বসানো হয়। এতে দৃশ্যমান হয় সেতুর পাঁচ হাজার ৫৫০ মিটার অংশ। আর মাত্র তিনটি স্প্যান বাকি রইল।

আগামী ২৩ নভেম্বর ১০ ও ১১ নম্বর পিলারে ৩৯তম ‘২-ডি’, ২ ডিসেম্বর ১১ ও ১২ নম্বর পিলারে ৪০তম ‘২-ই’ ও ১০ ডিসেম্বর ১২ ও ১৩ নম্বর পিলারে ৪১তম ‘২-এফ’ স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো কর্পোরেশন। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর