শরীরের অর্ধেক নেই, তবুও থেমে নেই বেলাল 

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১২ ১৪২৭,   ০৯ রবিউস সানি ১৪৪২

শরীরের অর্ধেক নেই, তবুও থেমে নেই বেলাল 

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৩৯ ২০ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:৪৬ ২০ নভেম্বর ২০২০

ছবি: বেলাল উদ্দিন

ছবি: বেলাল উদ্দিন

মানুষ কঠোর পরিশ্রম, অধ্যাবসায় আর মনোবল দিয়েই পৃথিবী জয় করেছে। এর অনেক প্রমাণ রয়েছে বিশ্বে। এমনকি জন্মগতভাবে কিংবা দুর্ঘটনাজনিতভাবে অনেকেই শরীরের একটি অঙ্গ হারিয়ে জয় করেছেন পৃথিবী।

স্বাভাবিক মানুষের চেয়েও তারা ভালোভাবে জীবন-যাপন করেন। এমন অনেকের কথাই তো জেনেছেন। আজ এমন একজন অদম্য মনোবলের মানুষের কথা জানাবো যিনি মনের জোড়েই নানা প্রতিকূলতা অতিক্রম করে বিশ্ব জয় করেছেন। নাম তার বেলাল উদ্দিন। 

দুই হাতে ভর করে চলছেন একাকী। ১৯৯৩ সাল, বেলালের বয়স তখন ১৩ বছর। বন্ধুদের সঙ্গে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে বেড়াতে যাবার পথে নেমে আসে এক দুঃস্বপ্ন। ট্রেনে কাটা পড়ে চিরতরে হারান দুটি পা। 

আরো পড়ুন: দিন-রাত পাপ কর্মে ডুবে আছে কুখ্যাত এক দ্বীপ

চলার মতো অবলম্বন নেই তার। তারপরও থেমে যাননি। ২০০০ সালে বাবাকে হারিয়ে একা হয়ে পরলেও, পঙ্গুত্ব নিয়েই বেলালকে ধরতে হয় সংসারের হাল। পানের দোকান থেকে শুরু করে বিক্রি করেছেন সবজিও।

গত বছর নগরীর বায়েজীদের রৌফাবাদে একটি অস্থায়ী দোকান দেন অদম্য এই যুবক। যেখানে মোবাইলের পাশাপাশি বিভিন্ন বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম মেরামত করেন তিনি। তাতেই চলে মা, স্ত্রী আর দুই সন্তানসহ ৫ সদস্যের একটি পরিবার।

বেলাল উদ্দিনের বিশ্বাস, ইচ্ছাশক্তি থাকলেই প্রতিবন্ধীরাও পারে অনেক কিছু করতে। কারো করুণার পাত্র না হয়ে থাকতে  চেয়েছেন বেলাল। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীরা ভিক্ষা না করে যদি কোনো কাজ করে খাই, তবে আমাদের দেশ আরও উন্নতি হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস/কেএসকে