অনলাইন ভেটেরিনারি হাসপাতাল, নতুন অধ্যায়ের সূচনা

ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৭,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

অনলাইন ভেটেরিনারি হাসপাতাল, নতুন অধ্যায়ের সূচনা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২৬ ২৫ অক্টোবর ২০২০  

অনলাইন প্রাণিসেবা প্লাটফর্ম ‘প্রাণিসেবা ভেট’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

অনলাইন প্রাণিসেবা প্লাটফর্ম ‘প্রাণিসেবা ভেট’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

‘অনলাইন ভেটেরিনারি হাসপাতাল’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশে আরেকটি নতুন অধ্যায়ের শুভ সূচনা বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, প্রাণীদের হাসপাতালে নিতে না পারলেও তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে আধুনিক চিকিৎসা দেয়া সম্ভব। তাই অনলাইনে প্রাণী চিকিৎসার এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এতে সব প্রাণীকে সেবা দেয়ার জন্য, তাদের চাহিদা পূরণের জন্য বর্তমান সরকার তৎপর ও কর্মক্ষম।

রোববার মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে আদর্শ প্রাণিসেবা লিমিটেডের উদ্যোগে আয়োজিত অনলাইন প্রাণিসেবা প্লাটফর্ম ‘প্রাণিসেবা ভেট’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

রেজাউল করিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন। সে স্বপ্ন দেখাকে অনেকেই একসময় ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ করেছেন। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তির বিস্তার এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ ব্যবস্থার প্রয়োজন কত বেশি সেটা করোনাকালীন প্রমাণিত হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, অনলাইনে প্রাণিসেবার উদ্যোগ সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে হবে, যেন বেসরকারি খাতের অন্যরাও এ উদ্যোগ নিতে আগ্রহী হয়। এক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সব প্রকার সহযোগিতা করা হবে।

তিনি বলেন, করোনা মহামারিতে উৎপাদিত ডিম, দুধ, মাংস ভ্রাম্যমাণ বিক্রয়ের মাধ্যমে আমরা সাধারণ মানুষদের উপকার করেছি। এ উদ্যোগের কারণে প্রাণিসম্পদ খাতে যে ভয়াবহ সংকটের আশঙ্কা করা হয়েছিল তা বাস্তবে দেখা যায়নি।

আদর্শ প্রাণিসেবার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফিদা হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অনলাইনে সংযুক্ত ছিলেন- মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ ও প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. আবদুল জব্বার শিকদার। 

এছাড়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ ভেটেরিনারি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. নজরুল ইসলাম এবং ভেটেরেনিয়ান ও পরিবেশবিদ ডা. মো. আওলাদ হোসেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ