মিল মালিক, পাইকার ও ফড়িয়ারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত: কৃষিমন্ত্রী

ঢাকা, রোববার   ২৯ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৭,   ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

মিল মালিক, পাইকার ও ফড়িয়ারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত: কৃষিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৩ ২৫ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৯:৪২ ২৫ অক্টোবর ২০২০

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক- ফাইল ছবি

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক- ফাইল ছবি

চাল ইস্যুতে মিল মালিক, পাইকার ও ফড়িয়ারা মিলে অতিমুনাফা করার জন্য নানা রকম ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। 

রোববার টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে আহম্মদ আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণকাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন। ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের ‘বন্যাপ্রবণ ও নদী ভাঙন এলাকায় বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের’ আওতায় এই  আশ্রয়কেন্দ্রটি নির্মিত হচ্ছে। 

মন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতেও দেশে খাদ্য উৎপাদন অব্যাহত রয়েছে। গত বোরো মৌসুমেও ধানের উৎপাদন ভালো হয়েছে। কিন্তু কয়েক দফার দীর্ঘস্থায়ী বন্যার কারণে আমন ধান উৎপাদন কিছুটা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। আশানুরূপ উৎপাদন না হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে। এসব কারণে আমরা লক্ষ্য করছি মিল মালিক, পাইকার ও ফড়িয়ারা মিলে অতিমুনাফা করার জন্য নানা রকম ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

সরকার এদের ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে খুব সতর্ক ও কঠোর অবস্থানে আছে বলেও দাবি করেন তিনি।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময়ই কৃষিবান্ধব ও কৃষকদরদি। তার নেতৃত্বে দেশে খাদ্য উৎপাদনে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। এই দুর্যোগেও এখন পর্যন্ত দেশে খাদ্যের কোনো সংকট হয়নি।

কোনো পরিস্থিতিতেই যেন খাদ্য সংকট না হয় সেজন্য সরকার পূর্বপ্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে জানিয়ে তিনি বলেন, সরকারের লক্ষ্য হলো বাংলাদেশের কোনো মানুষকে যেন না খেয়ে কষ্ট করতে না হয় সেটার নিশ্চয়তা দেয়া। সেজন্য, প্রয়োজন হলে অল্প পরিমাণ চাল বিদেশ থেকে আমদানি করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএইচআর/আরএইচ/এইচএন