‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ পালনে নিউইয়র্কে কর্মসূচি

ঢাকা, শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৫ ১৪২৭,   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভাষণ

‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ পালনে নিউইয়র্কে কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৭ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০  

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলায় ভাষণ দিনটিকে ‘বাংলাদেশি ইমিগ্র্যান্ট ডে’ হিসেবে পালনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে মুক্তধারা ফাউন্ডেশন।

ঢাকায় প্রাপ্ত বার্তায় বলা হয়, নিউইয়র্কে স্টেটের আইন পরিষদ ২৫ সেপ্টেম্বরকে বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণার পর দ্বিতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে চলেছে অভিবাসী বাংলাদেশিদের এই দিবসটি। জাতির জনককে নিবেদিত ১০ দিনের ভার্চুয়াল বাংলা বইমেলার ৮ম দিনটির বেশিরভাগ জুড়েই রয়েছে ইমিগ্রান্ট ডে নিয়ে অনুষ্ঠানমালা। এরইমধ্যে এ উপলক্ষে নিউইর্য়কের গভর্নর এন্ড্রু কুমো বাণী দিয়েছেন।

এন্ড্রু কুমো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলা ভাষণের দিনটিকে ঐতিহাসিক অভিহিত করে বহুজাতিক ভাষাভাষী মানুষদের মধ্যে বাংলাদেশিরা নিউইয়র্ক তথা আমেরিকার সমাজ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছেন বলে উল্লেখ করেন। এছাড়াও বাংলাদেশিরা তাদের কৃষ্টি-সংস্কৃতি-ইতিহাস দিয়ে আমেরিকাকে সমৃদ্ধ করছে বলেও তিনি বাণীতে উল্লেখ করেন।

এছাড়া বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণার প্রস্তাবক সিনেটর স্ট্যাভেস্কি, সিনেটর জন ল্রু এবং কংগ্রেসওম্যান এবং দক্ষিণ এশীয় কংগ্রেশনার কমিটির প্রধান গ্রেস ম্যাং এই দিবসে মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করছেন।

নিউইয়র্ক সময় রাত ৯টায় প্রচারিত হবে ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণা নিয়ে একটি তথ্যচিত্র। দ্বিতীয় পর্বে থাকছে এ বিষয়ে একটি আলোচনা। আমেরিকার মূলধারার রাজনীতিবিদরা ছাড়াও এতে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন।

২৫ সেপ্টেম্বরকে বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণার উদ্ভাবক বিশ্বজিত সাহার সঞ্চালনায় এই অনুষ্ঠানে আমেরিকা, বাংলাদেশ ও ইউরোপে প্রবাসী বাঙালিদের নিয়ে কাজ করে থাকেন তাদের অনেকেও উপস্থিত থাকবেন।

উল্লেখ্য, গত ১৪ জানুয়ারি স্টেট গভর্নর স্বাক্ষরিত বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে ঘোষণাপত্রের কপি ২০ জানুয়রি বিতরণ করেছেন নিউইয়র্ক স্টেট সেক্রেটারি আলেন্ড্রো এন পলিনো। নিউইর্য়কের মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা বিশ্বজিত সাহার চেষ্টায় গত বছর প্রথম রেজ্যুলেশনটি পাশ হয় নিউইয়র্ক স্টেট পার্লামেন্টে। সেটি নবায়ন করার জন্য গত ৯ জানুয়ারি সিনেটে উপস্থাপন করা হয়।

১৯৭৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর। নিউইয়র্কে জাতিসংঘের ২৯তম সাধারণ অধিবেশনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম বাংলায় বক্তব্য দেন।

পরে, ২০১৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্ক স্টেট সেনেটর স্টেভেস্কি এইদিনটিকে ‘বাংলাদেশ ইমিগ্রান্ট ডে’ হিসেবে’ রেজ্যুলেশন পাশ করার জন্য সিনেটে উপস্থাপন করেন এবং দীর্ঘ শুনানির পর এটি সর্বসন্মতিক্রমে পাশ হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে