বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করলে তলব করবে এনবিআর

ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১০ ১৪২৭,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করলে তলব করবে এনবিআর

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:১৯ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ভারত রফতানি বন্ধ করায় সম্প্রতি বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। তবে অনান্য কয়েকটি দেশ থেকে আমদানির প্রক্রিয়া চলছে। কম দামে পেঁয়াজ আমদানি করে কোনো ব্যবসায়ী বেশি দামে বিক্রি করলে তাকে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে (এনবিআর) তলব করা হবে। 

জানা গেছে, এবার এনবিআরের একাধিক গোয়েন্দা শাখা পেঁয়াজ আমদানির তথ্য সংগ্রহ করে বাজারে খোঁজ নেবে। পেঁয়াজ আমদানি ও বিক্রির তথ্যে বড় ধরনের গরমিল পাওয়া গেলে অর্থাৎ কম দামে আমদানি করে বেশি দামে বিক্রি করলে ওই আমদানিকারককে এনবিআরে তলব করা হবে। 

কী পরিমাণ পেঁয়াজ, কত দামে আমদানি করেছে, আমদানিকৃত পেঁয়াজ ওই ব্যবসায়ী কোনো আড়তদার, খুচরা বা পাইকারি বিক্রেতার কাছে বিক্রি করেছেন তার সব তথ্য তদন্তে জানতে চাওয়া হবে। একই সঙ্গে খতিয়ে দেখা হবে আমদানিকারকদের কাছ থেকে কিনে আড়তদার, পাইকারি বিক্রেতারা বা এজেন্টরা মজুদ রেখে বাজারে পেঁয়াজের কৃত্রিম সংকট তৈরি করছেন কি না। প্রয়োজনে এনবিআরে তাদেরও তলব করবে।

ভ্যাট নিরীক্ষা গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান বলেন, পেঁয়াজ কী দামে সংগ্রহ করা হয়েছে আর কী দামে বিক্রি করেছে তার তথ্য ভ্যাট গোয়েন্দা সংগ্রহ করে বড় ধরনের গরমিল পেলে অবশ্যই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে। ভ্যাট গোয়েন্দারা পণ্য কেনাবেচার তথ্য সংগ্রহ করার আইনি ক্ষমতা রাখে।

এদিকে, সম্প্রতি বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক কমাতে এনবিআরকে অনুরোধ করা হয়েছে। শুল্ক কমানো হলে আমদানিকৃত পেঁয়াজ দেশি পেঁয়াজের চেয়ে কম দামে বিক্রি হতে পারে। এতে দেশের কৃষকরা ন্যায্য মূল্য পাবে না। এই আশঙ্কায় এনবিআর শুল্ক কমানোর পথে হাঁটেনি বলে এনবিআর সংশ্লিষ্টরা জানান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএইচআর/এমআরকে