ফলদ বাংলাদেশের বৃক্ষরোপণ অভিযান

ঢাকা, বুধবার   ২১ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৬ ১৪২৭,   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ফলদ বাংলাদেশের বৃক্ষরোপণ অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৫৯ ৭ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৫:৫৫ ৭ আগস্ট ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

পুষ্টি, অর্থ ও প্রাকৃতিকভাবে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে দেশের প্রতিটি জেলায় ফলদ বৃক্ষ রোপণ করে যাচ্ছে ‘ফলদ বাংলাদেশ’ সংগঠনের কর্মীরা।

এইবর্ষায় ‘ফলদ বাংলাদেশে’-এর পক্ষ থেকে বৃক্ষরোপণ অভিযান অব্যাহত রাখা হয়েছে। প্রতি বছরের মতো এ বছরেও দেশের বিভিন্ন জেলায় সংগঠনটির স্বেচ্ছাসেবী ও কর্মীরা ফলদ (ফল দেয় যে বৃক্ষ) বৃক্ষরোপণ অভিযানে নিজেদের যুক্ত রেখেছেন।

আম, জাম, কাঁঠাল, পেয়ারা, লটকন, বেলসহ বিভিন্ন রকম ফলের গাছ রোপণ করার মাধ্যমে পুষ্টি চাহিদা পূরণ করার উদ্যোগ নিয়েছে সংগঠনটি।  

ফলদ বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা দ্রাবিড় সৈকত বলেন, ‘ফল উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং দেশের মাটিকে বিশুদ্ধ করতে পারার আগ পর্যন্ত আমাদের কার্যক্রম চলমান থাকবে’।

দ্রাবিড় সৈকত আরও বলেন, আমাদের অনুরোধ বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীতে রোপিত প্রতিটি গাছ যেনো হয় ফলের গাছ। আগামী পাঁচ বছর পরে যেনো বাংলাদেশ ফল রপ্তানিকারক দেশের অন্যতম একটি দেশে পরিণত হয়। এই গাছগুলো যখন বড় হবে তখন বাংলাদেশ যেনো পুষ্টি, অর্থ ও প্রাকৃতিকভাবে সমৃদ্ধ একটি দেশে পরিণত হয়। মানুষ যেনো হয় সুস্বাস্থ্যের অধিকারি।’

এ দাবি সংগঠনের সব কর্মীর। এই মহামারির কালে সতর্কতা বজায় রেখে দেশের ভবিষ্যতের স্বার্থে কাজ করে যাওয়া তারুণ্যই দেশকে আগামী দিনের পথ দেখাবে- এ প্রত্যাশায় সংগঠনের কর্মীরা নিজ নিজ এলাকায় ফলের বৃক্ষ রোপনের চেষ্টা করছে।

ফলদ বাংলাদেশের অন্যতম সংগঠক সঞ্জয় ঘোষ বলেন, ‘আপনারা নিজের এলাকায় কাজ করতে পারেন। এ দেশের সোনার মাটিকে রক্ষা করতে হলে ফলের বৃক্ষই রোপন করুন; বিদেশি ক্ষতিকর কাঠের গাছ আমাদের বাস্তুসংস্থান ধ্বংস করে দিচ্ছে। দেশেকে বাঁচাতে ফলের গাছ লাগান।’

তিনি আরো বলেন, জীব-প্রাণবৈচিত্র্যের স্বাভাবিক বিকাশ, দেশের পুষ্টি ও অর্থনৈতিক ঘাটতির কথা মাথায় রেখে কোন গাছ, কেন লাগানো উচিত এসব বিবেচনা করুন; নিজে উপযুক্ত গাছটি রোপন করুন, প্রতিবেশী ও পরিজনদেরও পরামর্শ দিন। সম্ভব হলে সংঘবদ্ধভাবে নিজ নিজ গ্রামে ভালো ভালো জাতের ফল গাছ রোপন করুন, এবং জমি ও সময় নষ্ট করে অযথা গাছ রোপন থেকে বিরত থাকতে উদ্বুদ্ধ করুন।

গ্রামের সঙ্গে যাদের যোগাযোগ আছে, যারা গ্রামে থাকেন কিংবা সারাদেশে বৃক্ষরোপন বা বনায়নে যাদের প্রভাব ফেলার মত কোনো না কোনো সুযোগ রয়েছে, তাদের সবাইকে বৃক্ষরোপন ব্যবস্থার দিকে নজর দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে ফলদ বাংলাদেশ, অপরাজেয় বাংলার পক্ষ থেকে।

সংগঠনটির পক্ষে এ বার্তা দেয়া হয়েছে যে, ভাবুন, দেশের সীমিত উর্বর জমিতে ফলগাছের বদলে বিদেশি কাঠসর্বস্ব গাছ আমরা কেন লাগাচ্ছি, যে গাছের পাতা দেশের পশুখাদ্যের যোগ্য নয়, যে গাছে পাখি বাসা বাঁধে না, জাতীয় পুষ্টি চাহিদা পূরণে অংশ নেয় না যে গাছ, ২০ বছরে যেকোনো ফল গাছের তুলনায় খুবই নগণ্য অর্থলাভ হয় যার মাধ্যমে? 

প্রয়োজনে যোগাযোগ:

https://www.facebook.com/ফলদ-বাংলাদেশ-অপরাজেয়-বাংলা-471931266224230/

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর