পরিচয় ভুলে ৬০ বছর বয়সে হয়েছেন মডেল, ভাঙছেন সৌন্দর্যের প্রথা

ঢাকা, বুধবার   ১৮ মে ২০২২,   ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

পরিচয় ভুলে ৬০ বছর বয়সে হয়েছেন মডেল, ভাঙছেন সৌন্দর্যের প্রথা

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৩১ ১২ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৭:৩২ ১২ জানুয়ারি ২০২২

মডেল লিন স্লেটার (ছবি: সংগৃহীত)

মডেল লিন স্লেটার (ছবি: সংগৃহীত)

লিন স্লেটার। সাধারণ মানুষের কাছে নামটি অচেনা হলেও ফ্যাশন মডেলিংয়ের জগতে খুব পরিচিত। ইচ্ছে করে মডেলিংয়ের দুনিয়ায় পা রাখেননি আমেরিকার নিউইয়র্কের বাসিন্দা লিন স্লেটার। হঠাৎ করেই ফ্যাশন জগতে আসেন তিনি। এ জগতে এসেই বহু প্রচলিত ধারণা ভেঙে দিয়েছেন ৬৮ বছরের এই নারী। 

ফ্যাশন মডেলিং ছাড়াও নিউইয়র্কের ফোর্ডহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজসেবা এবং আইনের অধ্যাপক লিন একজন সমাজকর্মী। 

জীবন বদলে যাওয়ার  সেই দিনটি এখনো স্পষ্ট মনে রেখেছেন লিন। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাস। নিউইয়র্কের অভিজাত ম্যানহাটন এলাকায় এক বন্ধুর জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিনি। সে সময় হঠাৎ করেই জীবন পাল্টে যায় তার।

ঐ সময় ফ্যাশন উইকের অঙ্গ হিসেবে ম্যানহাটনের লিঙ্কন সেন্টারের একটি শো চলছিল। বন্ধুকে নিয়ে তা দেখতেই তার জন্য রাস্তায় অপেক্ষা করছিলেন লিন। তবে শো দেখতে আসা বিদেশি ফটোগ্রাফাররা লিনকে দেখা মাত্রই তার ছবি তুলতে শুরু করেন। লিনকে দেখে তারা ভেবেছিলেন, নিশ্চয়ই তিনি ফ্যাশন জগতের কোনো ব্যক্তি। তখন লিনের বয়স ষাট পেরিয়ে গিয়েছিল।

আরো পড়ুন: সমীক্ষা: ৫৫ শতাংশ বিবাহ বিচ্ছিন্না নারী আগ্রহী দ্বিতীয় সম্পর্কে 

লিনের ওপর ক্যামেরার ঝলকানি দেখে নিউইয়র্কে বেড়াতে আসা লোকজনও তার ছবি তুলতে শুরু করেন। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি লিনকে। পরিচয়ের ভুলে রাতারাতি ফ্যাশন মডেল হয়ে যান ষাটোর্ধ লিন। বদলে যায় তার জীবনও। তবে সাফল্যের এ জীবনে নিজের গুনাগুন ঢেলেছেন তিনি। 

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে ঐ ঘটনার আগে থেকেই ফ্যাশন নিয়ে একটি ব্লগ লেখা শুরু করেছিলেন লিন। তবে ফ্যাশন জগতে থাকার ইচ্ছেই ছিল না তার। বরং কর্মজীবন শেষে একটা বই লেখার ইচ্ছে ছিল। 

কিন্তু ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরের ঐ ঘটনার পর ফ্যাশন পত্রিকা জুড়ে দেখা যায় শুধু লিনের ছবি। এর এক মাস পর লিন জায়গা করে নেন বিশ্ববন্দিত ‘ডাউনটাউন ম্যাগাজিন’-এ।  স্বাভাবিক ভাবেই এতে লিনের ব্লগের পাঠক সংখ্যাও বেড়ে গিয়েছিল।

ফ্যাশন নিয়ে গতেবাঁধা ধারণা থেকে বেরিয়ে লিন দিয়েছেন সৌন্দর্যের নতুন সংজ্ঞা। তার মতে, ফ্যাশনে পোশাকআশাক  নিজেকে প্রকাশ করার একটি মাধ্যম মাত্র। ফ্যাশন মডেল বলতেই যে কম বয়সী ‘সুন্দরী’র চেহারা ভেসে ওঠে, তাতেও হানা দিয়েছে লিনের বলিরেখা ভরা মুখ। পাকা চুলের এই বৃদ্ধার মুখে ঢাউস আকারের ভারী রোদ চশমাও তাতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে।

নিজের বয়সকে লুকিয়ে রাখতে চাননি লিন। রূপটানের পরত চাপিয়ে ‘সুন্দরী’ হওয়ার চেষ্টাও করেননি। বরং নিজের শরীর, তা সে যেমনই হোক না কেন, তাকে ফ্যাশন মডেল হিসেবে মেলে ধরেছেন। প্রতিটি দেহমনই যে সুন্দর— বহুচর্চিত এ ধারণাকে নিজের মতো করে বলতে চেয়েছেন লিন।

আরো পড়ুন: যে আটটি মিথ্যা সম্পর্কের ভিতকে আরো মজবুত করে  

লিনের বয়সে অনেকেই অবসরের আনন্দ উপভোগ করেন, সে বয়সেই ফ্যাশন মডেলিংয়ের দুনিয়ায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে এখনো পর্যন্ত তার ৭ লক্ষ ৫৯ হাজারের বেশি ‘ফলোয়ার’-এরমধ্যে অনেকেই কমবয়সী। তাদের অনেকে আবার লিনের মতো ‘কুল’ হতে চান। লিনের কথায়, কমবয়সীরা বার্ধক্যের ধারণাকে অস্বীকার করেন না। তারা এমন ভাবে বুড়ো হতে চান না, যা যুগ যুগ ধরে তাদের মনে গেঁথে দেওয়া হয়েছে।

ফ্যাশন মডেল হিসেবে এ ভাবেই নিজের ‘নিয়ম’ চালু করেছেন লিন। প্রথাগত নয়, বরং নিময়হীনতাই যেন লিনের জগতে নতুন নিয়ম।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএডি

English HighlightsREAD MORE »