যেসব খাবার খেলে রাতে ভালো ঘুম হয়

ঢাকা, বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১৩ ১৪২৮,   ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

যেসব খাবার খেলে রাতে ভালো ঘুম হয়

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:৩৫ ১৪ অক্টোবর ২০২১  

ঘুম। ছবি: সংগৃহীত

ঘুম। ছবি: সংগৃহীত

সারাদিনের কর্মব্যস্ত জীবনে এনার্জি যোগাতে রাতে পর্যাপ্ত ঘুম খুব জরুরি। তাছাড়া সুস্থ থাকার জন্যও আমাদের দৈনিক আট ঘণ্টা ঘুমানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। কিন্তু আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যারা রাতে ঠিকভাবে ঘুমাতে পারেন না।

অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাস, শরীরচর্চার অভাব, গ্যাজেটনির্ভর আধুনিক জীবন অনেকের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। অনেক সময় দেখা যায়, শরীর প্রচণ্ড ক্লান্ত কিন্তু ঘুম আসে না। এর ফলে সারাদিন শরীর খুব ক্লান্ত থাকে।

নিশ্চয়ই জানেন, রাত জাগা শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। রাতে ঘুম ঠিকমতো না হলে নানাবিধ শারীরিক রোগ দেখা দিতে পারে। তাই রাতে প্রয়োজনমতো ঘুমানো খুব জরুরি।

আধুনিক গবেষণা বলছে, কিছু খাবার রয়েছে, যা খেলে রাতে ঘুম ভালো হবে। শরীরে মেলাটোনিন ও কর্টিসল হরমোন নিঃসরণ হয়। ফলে রাতে ভালো ঘুম হয়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক বিশেষজ্ঞদের মতে রাতে ভালো ঘুমের জন্য কোন খাবারগুলো খাবেন-

>> মধু সেরেটোনিন ও মেলাটোনিন তৈরি করে। নিয়মিত মধু খেলে ভালো ঘুম হয়।

>> মিষ্টি আলুকে বলা হয় ‘ঘুমের মাসি’। এতে বিদ্যমান পটাশিয়াম ঘুমাতে সাহায্য করে।

>> সবজির স্যুপ, আপেল, বাদাম, কিশমিশসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর খাবার নিয়মিত খেতে হবে।  

>> নিয়মিত শরীরচর্চা করে মানসিক অবসাদ থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখলে ভালো ঘুম হয়।

>> কলায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম রয়েছে। তাই কলা খেলে রাতে ঘুম ভালো হয়।

>> লেটুস পাতায় বিদ্যমান ল্যাকটুক্যারিয়াম ভালো ঘুমে সহায়তা করে। এই পাতা গরম পানিতে ফুটিয়ে ও সালাদ করেও খেতে পারেন।

>> কাঠবাদামে বিদ্যমান ম্যাগনেশিয়াম ও ট্রিপটোফ্যান স্নায়ু ও মাংসপেশিকে শান্ত করে। স্নায়ু এবং মাংসপেশি শান্ত হলে ভালো ঘুম হবে।

>> আখরোটেও ট্রিপটোফ্যান রয়েছে। এটি সেরেটোনিন ও মেলাটোনিন তৈরিতে সাহায্য করে। রাতে ঘুমানোর আগে নিয়মিত দুটি আখরোট খেতে পারেন।

>> রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস গরম দুধ খেতে পারেন। এতে রাতে ঘুম ভালো হবে। দুধে বিদ্যমান অ্যামাইনো অ্যাসিড ট্রিপটোফ্যান ভালো ঘুমের জন্য সহায়ক।

>> ডিমে আছে ভিটামিন ডি। মস্তিষ্কে যে অংশের নিউরন ঘুমাতে সাহায্য করে, ডিমের ভিটামিন ডি সেখানে কাজ করে। ভিটামিন ডির ঘাটতি থাকলে সহজে ঘুম আসে না।

সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ