যুবদল নেতার মারধরে পা হারানো সেই যুবকের মৃত্যু

ঢাকা, রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ২ ১৪২৮,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

যুবদল নেতার মারধরে পা হারানো সেই যুবকের মৃত্যু

বগুড়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:১২ ১৪ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১৯:২২ ১৪ অক্টোবর ২০২১

যুবদলের লোগো

যুবদলের লোগো

বগুড়ার শাজাহানপুরে জুয়ার আসর বসানো নিয়ে যুবদল নেতা মারুফ হোসেনের মারধরে পা হারানো যুবক মেহেদী হাসান রাজু মারা গেছেন। বুধবার রাতে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

এর আগে, গত ২১ আগস্ট ঐ উপজেলার চোপিনগর ইউনিয়নের শাহনগর মণ্ডলপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। গত ৫ অক্টোবর মেহেদীর ডান পা কেটে ফেলা হয়।

নিহতের ছোট ভাই আলমগীর হোসেন জানান, মেহেদীর ঘরে জোরপূর্বক জুয়ার আসর বসাতেন যুবদল নেতা মারুফ। এতে বাধা দেওয়ায় তাকে মারধর করা হয়। এলোপাতাড়ি মারধরের কারণে মেহেদীর ডান পা ভেঙে যায়। পরবর্তীতে তার পায়ে পচন ধরে মাংস খসে পড়তে শুরু করলে চিকিৎসকের পরামর্শে পা কেটে ফেলা হয়।

মেহেদী হাসান রাজু শাজাহানপুর উপজেলার শাহনগর বেলায়েত পাড়ার আজাহার আলী রাজার ছেলে। অভিযুক্ত যুবদল নেতা মারুফ একই উপজেলার শাহনগর ডাক্তার পাড়ার আজিজার রহমানের ছেলে। তিনি শাজাহানপুর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

শাজাহানপুর থানার এসআই শাহীন আলী বলেন, মেহেদীকে মারধরের ঘটনায় গত ২৭ সেপ্টেম্বর মারুফকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেন তার ভাই আলমগীর। ঐ মামলায় ৪ অক্টোবর যুবদল নেতা মারুফকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জানতে চাইলে ওসি মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। আগের করা মামলাটিই হত্যা মামলা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হবে কিনা তা- ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানানো হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর/এইচএন/টিআরএইচ