খালেদাকে বিদেশে পাঠাতে ফের মরিয়া বিএনপি, যা রয়েছে নেপথ্যে

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১১ ১৪২৮,   ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

খালেদাকে বিদেশে পাঠাতে ফের মরিয়া বিএনপি, যা রয়েছে নেপথ্যে

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:১৭ ১৪ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১৫:০৬ ১৪ অক্টোবর ২০২১

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার নামে বিদেশে পাঠাতে আবারো মরিয়া হয়ে উঠেছেন দলের শীর্ষ নেতারা। বিনা কারণে কয়েকদিন পরপরই দল ও পরিবারের পক্ষ থেকে এ ধরনের অপতৎপরতা চালানো হয়।

কিছুদিন আগেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন। সে সময়েও বিনা অজুহাতে খালেদাকে বিদেশে পাঠাতে তৎপরতা শুরু করেছিলেন বিএনপি নেতারা। তাদের খোঁড়া যুক্তি ছিল, দেশে খালেদার ভালো চিকিৎসা হবে না। কিন্তু পরে সু-চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে ঠিকই বাড়ি ফেরেন খালেদা জিয়া। 

সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর দাবি তুলেছেন বিএনপির নেতারা। এরই মধ্যে মঙ্গলবার তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে অহেতুক ভর্তি করা হয়েছে।

আর এ ঘটনা নিয়ে জনমনে ও রাজনৈতিক অঙ্গনে শুরু হয়েছে বিস্তর আলোচনা-সমালোচনা। অনেকের মনেই প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে যে, খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠাতে বারবার কেন এত উতলা হয়ে উঠছেন বিএনপির নেতারা?

এসব বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত, দীর্ঘ সময় ধরে রাষ্ট্র ক্ষমতায় নেই বিএনপি। আন্দোলনের নামে সন্ত্রাস, জ্বালাও-পোড়াওয়ের মতো নানা কুকর্মের ফলে এরই মধ্যে দেশে জনগণের মধ্যে কোনো গ্রহণযোগ্যতা নেই বিএনপির। এ দলটিকে বর্তমানে সন্ত্রাসীদের দল হিসেবেই চেনে দেশের জনগণ।

তারা আরো বলেন, পরপর তিনটি জাতীয় নির্বাচনে হেরে দলের নেতারা হতাশ। এর মধ্যে দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা হওয়ায় তিনি রাজনীতি করতে পারছেন না। লন্ডনে থেকে দল পরিচালনা করছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তিনিও দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি। দেশে আসলে গ্রেফতার হবেন, সেই ভয়ে লন্ডন থেকেই দল পরিচালনা করেন তিনি।

বিএনপির দলীয় সূত্র জানায়, দেশে আন্দোলনের মাধ্যমে সরকার পরিবর্তনের বাগাড়ম্বর করলেও বিএনপির যে সেই সামর্থ্য নেই, সেটা দলের নেতারাও স্বীকার করেন। ফলে বিদেশিদের সহায়তায় ক্ষমতায় যাওয়ার মতো অবাস্তব চিন্তা করছে বিএনপি। 

বিএনপির শীর্ষ নেতাদের ধারণা, পলাতক দণ্ডপ্রাপ্ত তারেকের ভাবমূর্তি দেশ-বিদেশে বিলীন হলেও খালেদা জিয়ার হয়তো কিছুটা অবশিষ্ট রয়েছে। বয়োজ্যেষ্ঠ খালেদা জিয়া বিদেশে গেলে অন্তত কিছু দেশের অনুকম্পা আদায় করতে পারবেন। এমন দিবাস্বপ্নেই খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠাতে উঠেপড়ে লেগেছেন তারা।

এদিকে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা আরো বলেন, বিএনপিকে বুঝতে হবে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে বিদেশে পাঠানোর কোনো উপায় নেই। তাকে দেশে থেকেই চিকিৎসা নিতে হবে। সুতরাং বিএনপি যদি খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার অবাস্তব স্বপ্ন দেখে থাকে, তাহলে সেটি তাদের স্বপ্নই থেকে যাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/এইচএন