বরের প্রাইভেটকারের চাকা ফেটে প্রাণ গেল কনের দাদির

ঢাকা, সোমবার   ১৮ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৩ ১৪২৮,   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বরের প্রাইভেটকারের চাকা ফেটে প্রাণ গেল কনের দাদির

নীলফামারী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:২১ ১৩ অক্টোবর ২০২১  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় বরের প্রাইভেটকারের পেছনের চাকা ফেটে কনের দাদি মোহসেনা বেগম নিহত হয়েছেন। এ সময় ওই গাড়িতে থাকা বর-কনেসহ ৪ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার ভোরে উপজেলার রংপুর সড়কের বড়ভিটা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
 
নিহত মোহসেনা বেগম জেলার জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত কুঠিপাড়া গ্রামের সামসুল হকের স্ত্রী। আহতদের কিশোরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জ উপজেলার কেশবা গ্রামের বুদা মাহমুদের ছেলে আলিমুল হক বরযাত্রীসহ বিয়ে করতে যান জলঢাকা উপজেলার নেকবক্ত কুঠিপাড়া গ্রামে। সেখানে সোহরাব হোসেনের মেয়ে আফিয়া বেগমের সঙ্গে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বুধবার ভোরে কনেকে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় একটি প্রাইভেটকারে বর-কনে ও কনের দাদি মোহসেনা বেগম ও নানি জোবেদা বেগ কনের সঙ্গে বাড়ি আসছিলেন।

জলঢাকা-কিশোরগঞ্জ রংপুর সড়কের বড়ভিটা বাজার এলাকায় পৌঁছালে তাদের বহনকারী প্রাইভেটকারটির পেছনের ডান দিকের চাকা ফেটে গাড়িটি রাস্তার ধারে উল্টে যায়। অন্য গাড়ির বরযাত্রীরা দ্রুত তাদের উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে কনের দাদি মোহসেনা বেগমের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত বর-কনে ও কনের নানিসহ চারজন চিকিৎসাধীন রয়েছে।

তিনি আরো জানান, প্রাইভেট কারটি উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সময় চালক নাঈম পালিয়ে যান। পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে