হংকংয়ে দেখা মিলল জ্যাক মার

ঢাকা, বুধবার   ২৭ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১৩ ১৪২৮,   ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হংকংয়ে দেখা মিলল জ্যাক মার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৮ ১৩ অক্টোবর ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আলিবাবা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক আলিবাবা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা। গত বছর তার ব্যবসায়িক সাম্রাজ্যের ওপর চীনা সরকারের কড়া খবরদারি ও ধরপাকড়ের পর থেকে অনেকটাই লোকচক্ষুর অন্তরালে ছিলেন এই চীনা ধনকুবের। তবে সাম্প্রতিক সময়ে তাকে হংকংয়ে নিজের ব্যবসায়িক সহযোগীদের সঙ্গে বৈঠক করতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।    

গত বছরের অক্টোবরে সাংহাইয়ে চীনা আর্থিক নিয়ন্ত্রকদের সমালোচনা করে বক্তব্য দেন এই বিলিয়নিয়ার ব্যবসায়ী। এর ফলস্বরূপ, বেশকিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যায় জ্যাক মা'র সঙ্গে। তার প্রতিষ্ঠান আলিবাবা ও অ্যান্ট গ্রুপের ওপর নেমে আসে নানাবিধ নিষেধাজ্ঞার খড়গ। অ্যান্ট গ্রুপের মেগা আইপিও (প্রাথমিক গণপ্রস্তাব) বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এর পরপরই চীনে জনসম্মুখে আসা বন্ধ করে দেন জ্যাক মা। তার এই অনুপস্থিতি অসংখ্য প্রশ্নের জন্ম দেয় সাধারণ মানুষের মনে। তবে এবার তাকে পাওয়া গেল হংকংয়ে। একটি সূত্র জানিয়েছে, গত অক্টোবরের পর এটিই তার প্রথম বাণিজ্যিক সফর। তবে জ্যাক মা'র ফিরে আসার ব্যাপারে রয়টার্সের কাছে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি আলিবাবা। যদিও সে সময় প্রতিষ্ঠানটির ব্যবসায়িক কর্মঘণ্টা শেষ হয়ে গিয়েছিল। সাধারণত, নিজের কোম্পানির মাধ্যমেই সব রকম বার্তা দিয়ে থাকেন জ্যাক মা।

জ্যাক মা'র হংকংয়ে ফেরার খবর যে দুটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, তারাও গোপনীয়তাজনিত সীমাবদ্ধতার কারণে নিজেদের নাম-পরিচয় প্রকাশ করতে রাজি হননি।

একসময় চীনের সবচেয়ে বিখ্যাত ও স্পষ্টবাদী উদ্যোক্তা হিসেবে পরিচিত, জ্যাক মা অধিকাংশ সময় চীনের পূর্বাঞ্চলের শহর, হ্যাংঝু'তে থাকেন। সেখানেই তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের সদর দপ্তর অবস্থিত। সাবেক ব্রিটিশ কলোনি, হ্যাংঝুতে জ্যাক মা'র অন্তত একটি বিলাসবহুল বাড়ি রয়েছে। তার কোম্পানির কিছু ব্যবসায়িক কার্যক্রমও সেখান থেকে পরিচালিত হয়।  

নিউইয়র্ক ছাড়াও, আলিবাবা হংকংয়ের পুঁজিবাজারেরও তালিকাভুক্ত। ব্যবসায়ী জীবনের আগে জ্যাক মা ছিলেন একজন ইংরেজি শিক্ষক। গত জানুয়ারিতে একদল শিক্ষকের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলেন তিনি। এর আগে তিন মাস লোকচক্ষুর আড়ালে ছিলেন তিনি। তবে ভিডিও কলে দেখা দেওয়ার সংবাদ পাওয়ার পরপরই মানুষ কিছুটা শঙ্কামুক্ত হয়, আলিবাবার শেয়ারও এক লাফে অনেকটা বেড়ে যায়।

সূত্র: রয়টার্স

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ