আইইউবিএটিতে ক্লাব গড়ে দেয় আত্মার বন্ধন

ঢাকা, রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ২ ১৪২৮,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আইইউবিএটিতে ক্লাব গড়ে দেয় আত্মার বন্ধন

শিক্ষাঙ্গন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫৪ ১২ অক্টোবর ২০২১  

প্রতিটি আয়োজনের শেষে সদস্যরা মিলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হয়

প্রতিটি আয়োজনের শেষে সদস্যরা মিলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হয়

আরাফাত আহমেদ গত বছরের সামার সেমিস্টারে ভর্তি হলেন এখানে। মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এই ছাত্রটি শুরুতে নতুন পরিবেশে মানিয়ে নিতে পারছিলেন না। এ নিয়ে যখন খুব অস্বস্তি হচ্ছিল, তখনই একদিন নোটিশ বোর্ডে চোখ পড়ল। একটি নোটিশে লেখা—ডিবেটিং ফোরাম অব আইইউবিএটিতে নতুন সদস্য নেওয়া হবে। দেরি না করে তিনি ডিবেটিং ফোরামের সদস্য হয়ে গেলেন। এখন আরাফাতের ধ্যানজ্ঞান বিতর্ক। 

তিনি বললেন, অন্য ক্যাম্পাসের বিতর্কের ক্লাবের সঙ্গে আমাদের ক্লাবের পার্থক্য অনেক। আমরা সব সময় ইংরেজি বিতর্ক করি। সেখানে উচ্চারণ ও পাবলিক স্পিকিংয়ের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। চার মাস পর পর নতুন সদস্য নিই। নিয়মিত কর্মশালা ও প্রতিযোগিতার আয়োজন করি। আরো মজার ব্যাপার হলো—প্রতিটি আয়োজনের শেষে সদস্যরা মিলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করি। 

তিনি আরো বললেন, আমাদের অর্জন অনেক। যেমন ২০১৪ সালে সাউথ এশিয়ান ডিবেট ফ্যাস্টিভালে আমাদের ক্লাবের জুবায়ের হক সেরা বিতার্কিক হয়েছিলেন।

ক্যাম্পাসে আছে মোট পাঁচটি ক্লাব—আইইউবিএটি গোল্ড, আইইউবিএটি ব্লুজ, আইইউবিএটি জাগুয়ার্স, ডিবেটিং ফোরাম অব আইইউবিএটি, আইইউবিএটি ড্রামা ফোরাম। ১১টি সোসাইটি হলো—আইইউবিএটি বিজনেস, আইটি, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইকোনমিকস, ল্যাংগুয়েজ, অ্যাগ্রিকালচার, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, নার্সিং সোসাইটি এবং দ্য সোসাইটি অব আইইউবিএটি স্কলার্স। আরো আছে—আইইউবিএটি ফটোগ্রাফি অ্যাসোসিয়েশন। 

সবগুলো সাংস্কৃতিক সংগঠন মিলে ক্যাম্পাসে বৈশাখ, বসন্ত, নবান্ন, পিঠা ও ঘুড়ি উত্সব করে, ভালোবাসা, ভাষা আন্দোলনসহ জাতীয় দিবসগুলো পালন করে। প্রতিটি উত্সবে থাকে নাচ, গান, নাটক, আবৃত্তি।

আইইউবিএটি ড্রামা ফোরামের সদস্য তামান্না হক বললেন, প্রতিবছর আমরা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র উত্সব ও প্রতিযোগিতা করি। ফি বছর ছবি প্রদর্শনী করি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার দল আইইউবিএটি জাগুয়ার্সের সদস্য রুবায়েত আহমেদ বললেন, প্রতিবছর আমরা আন্তবিশ্ববিদ্যালয় ক্রিকেট, ফুটবল, ব্যাটমিন্টন ও ভলিবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করি।

তিনি গর্বের সঙ্গে বললেন, ২০১৬ সালে আমরা আন্তবিশ্ববিদ্যালয় প্রতিযোগিতায় ব্যাডমিন্টনে সিঙ্গেলসে চ্যাম্পিয়ন ও ডাবলসে রানার-আপ হয়েছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ক্লাব আইইউবিএটি গোল্ড ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই ক্লাবের সহসভাপতি শাহ মোহাম্মদ ইশতিয়াক প্রধান বললেন, আমরা সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও খেলার আয়োজন করি। এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে জব ফেয়ার করব। 

১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠিত আইইউবিএটি ব্লুজের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া হোসেন জানালেন, খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজনের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মানসিকভাবেও সাপোর্ট দিই। যেমন—২০১৩ সালে আমাদের এক ছাত্রীকে তার পরিবার জোর করে বিয়ে দিতে চাইলে সে বাসা থেকে চলে আসে। পরে বিষয়টি জানালে আমরা উপ-উপাচার্য ফারজানা আল ফেরদৌসকে জানাই। তিনি ও ক্লাবের পাঁচ সদস্য তাদের বাসায় গিয়ে কথা বলেন। তারা মেয়েকে লেখাপড়া করতে দিতে রাজি হন। এখন তার লেখাপড়া শেষ। কিছুদিনের মধ্যে বিয়ে করবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম