ঘরোয়া সাজেই হোক বর্ষবরণ

ঢাকা, শনিবার   ১২ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

ঘরোয়া সাজেই হোক বর্ষবরণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:২৯ ১৩ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ১০:৩৩ ১৩ এপ্রিল ২০২১

বৈশাখী সাজ। ছবি: সংগৃহীত

বৈশাখী সাজ। ছবি: সংগৃহীত

পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। বাঙালির প্রতিটি ঘরে ঘরেই এই দিনটিকে উদযাপন করা হয়। যে যেভাবে পারেন এই দিনটি সেভাবেই সবাই পালন করেন। যদিও বর্ষবরণের রীতি প্রায় সব দেশেই রয়েছে। আমাদের দেশে এই উৎসব গ্রামকেন্দ্রিক হলেও, এখন শহরে এর আমেজ সবচেয়ে বেশি দেখা যায়।

প্রতি বছর নারী, পুরুষ, শিশু সবাই নিজেদের সাজায় বৈশাখী সাজে। গতবারের মতো এবারো আর তা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ হচ্ছে প্রাণঘাতী করোনা। যা আমাদের দেশে আবারো মরণ থাবা বসিয়েছে। তাই ছোঁয়াচে এই রোগ থেকে বাঁচতে বাঙালিরা এক প্রকার ঘরবন্দী। তাই বলে যে বর্ষবরণ হবে না, তা কিন্তু নয়। বাইরে না বের হলেও ঘরে বসেই পালন করুন নববর্ষ। নিজেকে ঘরে থেকেই সাজিয়ে নিন বৈশাখী সাজে। চলুন জেনে নেয়া যাক ঘরের মধ্যে কেমন হবে বৈশাখের সাজ-পোশাক-

বৈশাখী সাজপোশাক

কটন, এন্ডিকটন, ভয়েল কিংবা লিলেনের মতো কাপড় বৈশাখি পোশাকে কাপড় হিসেবে বেছে নিন। যেহেতু ঘরেই থাকা হবে তাই সিম্পল পোশাকই ভালো। রঙের ক্ষেত্রে বৈশাখ মানেই লাল-সাদা। তারপরও অন্যান্য রঙ যে পরা যাবে না, এমন নয়। তাই লাল-সাদার পাশাপাশি হলুদ, লেমন, পার্পেল, বাসন্তির মতো রঙও বেছে নিতে পারেন। শাড়ি পরতে না চাইলে কামিজ কিংবা কুর্তিও পরতে পারেন।

মেকআপ

ঘরেই যেহেতু থাকা হবে, তাই ভারী সাজ না দিয়ে হালকা সাজ দেয়া ভালো। আই মেকআপ হালকা নিতে পারেন। চোখের শ্যাডো হালকা ব্রাউনিশ বা গ্রিনিশ থাকবে। আইব্রো টাচআপ অবশ্যই দেবেন। চোখে কাজল, আইলাইনার ব্যবহার করতে পারেন। আইল্যাশ না লাগালেও পারেন। লিপস্টিকের ক্ষেত্রে লাল কিংবা পোশাকের সঙ্গে মানানসই রঙ বেছে নিতে পারেন। অথবা ঘরে যেহেতু থাকা হবে, তাই নুড কালারও ঠোঁটে লাগাতে পারেন।

বৈশাখী সাজ চুলের সাজ

চুল না ছেড়ে হালকা বাঁধতে পারেন। সাধারণ বেণী বা ফ্রেঞ্চ বেণী বেশ মানিয়ে যাবে। আবার সামনে একটু মেসি স্টাইল করে, পেছনটা খোঁপা করা যেতে পারে। তাছাড়া সামনের দিকে ফ্রেন্স বেণী করে পেছনে খোঁপাও করা যেতে পারে। আবার মাঝখানে একটি সিঁথি করে খোঁপা করতে পারেনা।

গয়না

যেহেতু ঘরেই থাকা হবে তাই সিম্পল গয়না বেছে নিন। শাড়ির সঙ্গে মাটির গয়না বেছে নিতে পারেন। যা বৈশাখে বেশ মানানসই। তাছাড়া কাঠ, রুপা, মুক্তা বা তামার মালা পরতে পারেন। ভারী গয়না পরবেন না। বাঙালি নারী গয়না না পরলেও দু’হাত ভর্তি চুড়ি সাজ পূর্ণ করে দেয়। তাই পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে রেশমি চুড়ি পরতে পারেন। মাটির বা কাঠের চুড়িও কিন্তু বেশ মানিয়ে যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ