কুষ্টিয়ায় বন্ধুদের নিয়ে মাকে খুন, আটক ৩

ঢাকা, শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১৪ ১৪২৭,   ১৩ রজব ১৪৪২

কুষ্টিয়ায় বন্ধুদের নিয়ে মাকে খুন, আটক ৩

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:০৭ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ০০:১৮ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মাকে হত্যাকারী ঘাতক সন্তান মুন্না; ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মাকে হত্যাকারী ঘাতক সন্তান মুন্না; ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের কাটদহ গ্রামে বন্ধুদের নিয়ে মা মমতাজকে খুন করেছে তার ছেলে।  এ ঘটনায় তিনজকে আটক করেছে পুলিশ। 

জানা গেছে, ২৮ দিন আগে ছেলে মুন্না তার তিন বন্ধুকে নিয়ে মা মমতাজকে খুন করে বাড়ির পাশে পুকুরের পাড়ে পুঁতে রাখে। অজ্ঞাত পুরুষের সাথে মা চলে গেছে বলে গুজব ছড়ায়।

ওই ঘটনায় মমতাজের জামাতা মিরপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) কুষ্টিয়ার গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল মুন্নার বন্ধু রাব্বিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে খুনের দায় স্বীকার করে। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বাড়ির পাশের পুকুর থেকে মমতাজের  লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ। রাব্বির দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই কাদের এবং সুজন নামে তার আরো দুই বন্ধুকে আটক করে পুলিশ। তবে মুন্না এখনো পলাতক আছে।

এ বিষয়ে ডিবি পুলিশের ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, সাধারণ ডায়েরির প্রেক্ষিতে ডিবি পুলিশ প্রথমে রাব্বি নামে একজনকে আটক করে। পরে আটক রাব্বিকে জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায়, নিহতের ছেলে মুন্না কাদের এবং সুজনের সহযোগিতায় মমতাজকে হত্যা করা হয়। পরে তার লাশ বাড়ির পাশে পুকুরের পাড়ে গর্ত করে মাটির নিচে পুঁতে রাখে। 

এই ঘটনার মূলহোতা নিহতের ছেলে মুন্নাকে আটক করতে অভিযান চলছে বলে জানান ওসি আমিনুল ইসলাম। তাকে আটক করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান তিনি। 

ওসি আরো জানান, সম্পত্তি বিক্রির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/SA