অল্পতেই চোখে জল আসা মানুষগুলোর মধ্যে রয়েছে এক বিশেষ গুণ

ঢাকা, সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১১ ১৪২৭,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অল্পতেই চোখে জল আসা মানুষগুলোর মধ্যে রয়েছে এক বিশেষ গুণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫১ ৭ আগস্ট ২০২০  

অল্পতেই কান্না করা মানুষ বিশেষ গুণের অধিকারী

অল্পতেই কান্না করা মানুষ বিশেষ গুণের অধিকারী

মানুষের মধ্যে আবেগ ও অনুভূতি অন্য সব প্রাণীদের থেকে চেয়ে বেশি। একমাত্র মানুষই অন্যের ব্যথায় কাঁদে। তবে সব মানুষের আবেগ এক হয় না। এক্ষেত্রে কিছু ভিন্নতা দেখা যায়।

আমাদের এমন অনেকেই আছেন যারা একটু কঠোর। আবার অনেকেই আছেন যারা খুব অল্পতেই বেশি আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। কথায় কথায় তাদের চোখে জল চলে আসে। যদি আপনিও এমন হয়ে থাকেন, তবে জেনে রাখুন আপনার মধ্যেই রয়েছে এক বিশেষ গুণ। যদিও সমাজের বেশীরভাগ মানুষ তাদের দুর্বল মনে করেন। তবে মনোবিদরা তাদেরকে অন্যরকম মনে করেন।

সম্প্রতি একটি গবেষণার মাধ্যমে মনোবিদরা জানতে পেরেছেন, যারা অতিরিক্ত মাত্রায় কাঁদেন তাদের মধ্যে কয়েকটি বিশেষ বৈশিষ্ট্যও থাকে। মনের মধ্যে কোনো কষ্ট জমে থাকলে তা খুবই ক্ষতিকারক। উল্টোদিকে যারা কেঁদে নিজের কষ্ট বের করে ফেলতে পারেন, তাদের পক্ষে সেই কষ্ট থেকে বেরিয়ে আসাও তুলনামূলক ভাবে একটু সহজ।

জীবনে বড় কোনো ধাক্কা খাওয়ার পরে মুহূর্তের জন্য কাঁদলেও, এরা সেই কষ্ট থেকে বেরিয়ে আসেত পারেন ওনেক সহজে। অনেকের ধারণা যারা কাঁদেন তারা ভীতু হন। কিন্তু মনোবিদরা উল্টোটাই মনে করেন। তাদের মতে, যারা কাঁদেন, তারা সাহসী হন। নিজের মনের ভাব প্রকাশ করতে তারা ভয় পান না।

অনেকে কান্না চেপে রাখেন নিজেকে দুর্বল হিসেবে লোকের সামনে দেখাতে চান না তাই। কিন্তু যারা সমস্ত দুঃখ-কষ্টকে মেনে নিয়ি কাঁদতে ভয় বা লজ্জা পান না তারাই হলো আসল সাহসী। যারা বেশি কাঁদেন তারা জীবনে সমতা বজায় রাখতে সক্ষম হন। এরা জানেন কেঁদে মনের ভার হালকা করলে জীবনের পথে চলতে তাদের বরং সুবিধাই হবে।

উল্টোদিকে যারা না কেঁদে, কষ্ট ভেতরে আটকে রাখেন তাদের মাথায় ও জীবনে সেই কষ্ট প্রভাব ফেলে সব থেকে বেশি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ