নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীর মৃত্যু: মূল চালক হারুনের স্বীকারোক্তি

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২২,   ৫ মাঘ ১৪২৮,   ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীর মৃত্যু: মূল চালক হারুনের স্বীকারোক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৭ ৩০ নভেম্বর ২০২১  

নটরডেম কলেজের নিহত শিক্ষার্থী নাঈম হাসান। ছবি: সংগৃহীত

নটরডেম কলেজের নিহত শিক্ষার্থী নাঈম হাসান। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর গুলিস্তানে রাস্তা পারাপারের সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের মৃত্যুর ঘটনায় করা পল্টন থানার মামলায় গাড়ির মূল চালক হারুন মিয়া ওরফে কাইল্লা হারুন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলামের আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

এদিন রিমান্ড শেষে আসামি হারুনকে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আসামি স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হন। এরপর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক আনিছুর রহমান ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে, গত ২৬ নভেম্বর রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরদিন গত ২৭ নভেম্বর হারুন মিয়ার দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এদিকে এ মামলায় গত সোমবার পরিচ্ছন্নকর্মী রাসেল খান আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

গত ২৪ নভেম্বর সকালে পল্টন মডেল থানার গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু স্কয়ার গোলচত্বরের দক্ষিণ পাশে নাঈম হাসান (১৮) রাস্তা পার হওয়ার সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের একটি ট্রাক নাঈমকে ধাক্কা দেয়। ঐ সময় চালক ছিলেন চালক রাসেল খান। এরপর নাঈমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) নেয়ার পর জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তাকে বেলা পৌনে ১২টায় মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বাবা শাহ আলম দেওয়ান বাদী হয়ে এ ঘটনায় মামলা করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ

English HighlightsREAD MORE »