ই-জুডিশিয়ারির অগ্রগতি ফের জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

ঢাকা, সোমবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২২ ১৪২৮,   ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

ই-জুডিশিয়ারির অগ্রগতি ফের জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০০ ২১ অক্টোবর ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দেশের আদালতগুলোয় ই-জুডিশিয়ারি ও ই-কোর্ট রুম দ্রুততম সময়ের মধ্যে স্থাপনের বিষয়ে জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে পুনরায় আইন মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেছেন আদালত। পাশাপাশি এ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য ৩০ নভেম্বর দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাডভোকেট ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ ভূঁইয়া।

২০১৯ সালের ১১ ডিসস্বর ই-জুডিশিয়ারি স্থাপনের নির্দেশনা চেয়ে আইনজীবী ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ ভূঁইয়া হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

বিচারকার্য দ্রুত সম্পাদন ও বিচার প্রার্থীদের ভোগান্তি দূর করাসহ সংবিধানের ৩১, ৩২ ও ৩৫ এর (৩) অনুচ্ছেদের চেতনার সঙ্গে বিদ্যমান বিচারব্যবস্থা সাংর্ঘষিক উল্লেখ করে এ রিট দায়ের করা হয়।

সে রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২০২০ সালের ১৯ জানুয়ারি দেশের আদালতসমূহে ই-জুডিশিয়ারি ও ই-কোর্ট রুম দ্রুতসময়ের মধ্যে স্থাপনের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। আইন সচিবসহ মোট ৯ জন বিবাদীকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছিল।

পরে আরেকটি আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দেশের আদালতসমূহে ই-জুডিশিয়ারি ও ই-কোর্ট রুম দ্রুততম সময়ের মধ্যে স্থাপনের বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন হাইকোর্ট। ২০ অক্টোবরের মধ্যে এ বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছিল। তবে সে প্রতিবেদন দাখিল না হওয়ায় পুনরায় সময় বেঁধে দিলেন হাইকোর্ট।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ