সুইফট কোম্পানির পরিচালক কারাগারে

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১,   ফাল্গুন ১২ ১৪২৭,   ১২ রজব ১৪৪২

পদত্যাগপত্র দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী: সুইফট কোম্পানির পরিচালক কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৫৪ ২০ জানুয়ারি ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চাকরির পদত্যাগপত্র জমা দিতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণীর করা মামলায় গ্রেফতার রাজধানীর বনানীর সুইফট ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির পরিচালক জহুরুল ইসলামকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমানের আদালত জামিন আবেদন খারিজ করে এ আদেশ দেন। এর আগে আসামি জহুরুলকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। 

গতকাল মঙ্গলবার রাত ২টায় রাজধানীর পল্লবী থানা এলাকার বাসা থেকে জহুরুলকে গ্রেফতার করে উত্তরা পশ্চিম থানা-পুলিশ।

মামলার সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১০ আগস্ট মামলার বাদিনীর সঙ্গে আসামি জহুরুল ইসলামের পরিচয় হয়। পরিচয়ের সূত্র ধরে আসামি জহুরুল বাদিনীকে তার কোম্পানিতে চাকরি করার প্রস্তাব দিলে সে প্রস্তাবে রাজি হয়। 

২০১৮ সালের ২৬ আগস্ট আসামি জহুরুল বাদিনীর বরাবর সুইফট ডেলপমেন্ট কোম্পানির একটি নিয়োগপত্র প্রদান করেন। ২০১৮ সালের ৫ অক্টোবর বাদিনী আসামি জহুরুলের পরিচালনাধীন সুইফট ডেভেলপমেন্ট কোম্পানিতে যোগদান করেন। চাকরি করাকালীন সময়ে আসামি জহুরুল বাদিনীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করে এবং রাজী নাহলে বাদিনীকে চাকুরিচ্যুত করার হুমকি দেন। 

পরবর্তীতে বাদিনী আসামি জহুরুলের কোম্পানীতে চাকরি না করার সিদ্ধান্ত নেয়। এরপর গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর সকাল ৯টার দিকে পদত্যাগপত্র নিয়ে গেলে অফিসে কেউ না থাকায় আসামি জহুরুল তার অফিসের বিশ্রাম কক্ষে তাকে জোর পূর্বক টেনে নিয়ে দরজা বন্ধ করে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। 

ধর্ষণের ঘটনায় গত সোমবার তরুণী বাদী হয়ে ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-৯ এ জহুরুল ইসলামকে আসামি করে মামলা করেন। এরপর আদালত মামলাটি উত্তরা-পশ্চিম থানাকে এজাহার হিসেবে গ্রহণ করার নির্দেশ দেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর