বরিশালের লঞ্চে ধর্ষণ-হত্যা, প্রেমিক গ্রেফতার
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=205977 LIMIT 1

ঢাকা, বুধবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ৮ ১৪২৭,   ০৫ সফর ১৪৪২

বরিশালের লঞ্চে ধর্ষণ-হত্যা, প্রেমিক গ্রেফতার

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪৫ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:০৯ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা-বরিশালগামী এমভি পারাবত-১১ লঞ্চের কেবিনে জান্নাতুল ফেরদৌস লাবনী নামে এক যাত্রীকে হত্যার অভিযোগে পরকীয়া প্রেমিক মো. মনিরুজ্জামানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার রাজধানীর মিরপুর-১ থেকে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) একটি টিম তাকে গ্রেফতার করে। এ নিয়ে বরিশালের এসপি হুমায়ুন কবির বুধবার সকালে প্রেস কনফারেন্স করেন।

এসপি বলেন, মনিরুজ্জামানের বাড়ি গাজীপুরের কাপাসিয়ায়। ১৩ সেপ্টেম্বর জান্নাতুল ফেরদৌসকে নিয়ে পারাবত লঞ্চের কেবিনে ঢাকা থেকে রওয়ানা হন তিনি। সকালে মনিরুজ্জামান লঞ্চ থেকে নেমে যাওয়ার আগে জান্নাতুলের গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করে লঞ্চ থেকে নেমে যায়। নৌ পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করার পর পিবিআই মনিরুজ্জামানকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার মনিরুজ্জামান হত্যার দায় স্বীকার করেছেন বলে প্রেস কনফারেন্সে জানান এসপি।

এ ঘটনায় বরিশাল নদী-বন্দর সদর থানার এসআই অলক চৌধুরী বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।  মঙ্গলবার বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ নিহতের বাবা আ. লতিফ মিয়ার কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। 

আরো পড়ুন >>> আঙুলের ছাপ দেখে মিলল লঞ্চের কেবিনে নিহত নারীর পরিচয় 

জানা গেছে, গত ১৩ সেপ্টেম্বর ঢাকা নৌ-বন্দর ঘাটে এমভি পারাবত-১১ লঞ্চের ৩৯১ নম্বর কেবিনটি কামরুল নামে এক ব্যক্তি বুক করেন। সন্ধার দিকে জান্নাতুল ফেরদৌস লাবনী ও অজ্ঞাতনামা এক পুরুষ ব্যক্তি লঞ্চে উঠেন। 

১৪ সেপ্টেম্বর বরিশাল ঘাটে লঞ্চ নোঙ্গর করার পর সব যাত্রী নেমে গেলেও ৩৯১ নম্বর কেবিনের যাত্রী না নামায় কক্ষে খোঁজ নেন স্টাপ বয়রা। সেখানে লাবনীকে খাটে পড়ে থাকতে দেখে নৌ-পুলিশদের খবর দেয়। কোতোয়ালি থানা পুলিশ ও ক্রাইম সিন পুলিশ আলাদাভাবে তদন্ত করে এবং লঞ্চের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ থেকে খুনিকে শনাক্ত করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে/জেডএম