‘চাইলেই ভ্রমণের নামে রাষ্ট্রীয় অর্থ ব্যয় নয়’

ঢাকা, শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০,   আশ্বিন ১১ ১৪২৭,   ০৮ সফর ১৪৪২

‘চাইলেই ভ্রমণের নামে রাষ্ট্রীয় অর্থ ব্যয় নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪০ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৬:২২ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম- ফাইল ফটো

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম- ফাইল ফটো

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বিদেশ ভ্রমণের যে রেওয়াজ আছে তা ভেঙে যুক্তিসঙ্গত করা সময়ের দাবি। চাইলেই ভ্রমণের নামে রাষ্ট্রীয় অর্থ ব্যয় করার মানে হয় না। অপ্রয়োজনীয় বিদেশ ভ্রমণ কর্মকর্তাদের বন্ধ করতে হবে। এতে রাষ্ট্রের মঙ্গল হবে। 

সম্প্রতি তিনি এসব কথা বলেন। 

মন্ত্রী বলেন, সব ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ বাড়ছে। জনকল্যাণে আরো দায়িত্বশীল হওয়ার সময় এখন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ পরিস্থিতি মোকাবিলায় যে শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন, তা সবার জন্য অনুসরণীয়। 

সম্প্রতি তার মন্ত্রণালয়ে একটি প্রজেক্টের জন্য ফাইল তৈরি করা হয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমি দেখলাম, এর মধ্যে ২৫ জন কর্মকর্তার বিদেশ যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। শুধু বিলাসিতার জন্য তাদের নাম তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আমি সঙ্গে সঙ্গে তাদের নাম বাতিল করেছি। এটিই করতে হবে। রাষ্ট্রের টাকা এভাবে অপচয় হতে পারে না।

তিনি বলেন, অনেক ভ্রমণ জরুরি হয়ে পড়ে। উন্নত বিশ্বেও এমন ভ্রমণের রেওয়াজ আছে। প্রজেক্ট ভিত্তিক প্রশিক্ষণ জরুরি হয়। কিন্তু মিডিয়া অনেক সময় প্রকৃত কারণ উল্লেখ না করে গড়পড়তায় নিউজ করে। এতে সত্যের সঙ্গে মিথ্যা আশ্রিত হয়ে প্রকৃত ঘটনা আড়ালে পড়ে যায়। সত্য প্রকাশ পেলে সাবধান হওয়ার সুযোগ মেলে। ব্যবস্থা নেয়ার ক্ষেত্র তৈরি হয়। 

তিনি আরো বলেন, কর্মকর্তাদের অযাচিত বিদেশ ভ্রমণের যে রেওয়াজ তাতে পরিবর্তন আনা নির্ভর করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর ওপর। আমি এমন ভ্রমণ বন্ধ করছি। যেখানে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার দরকার সেখানে মন্ত্রী, সচিব, ডিজি যাবে কেন? আমি মন্ত্রীদেরেও সৌখিন ভ্রমণ বাতিলের পক্ষে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে/এইচএন