৭ বছর প্রেমের পর জুটি বেঁধেছিলেন বিল-মেলিন্ডা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৩ ১৪২৮,   ২৩ রমজান ১৪৪২

৭ বছর প্রেমের পর জুটি বেঁধেছিলেন বিল-মেলিন্ডা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:০৮ ৪ মে ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বখ্যাত ধনী ও মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও তার স্ত্রী মেলিন্ডা গেটস বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বর্তমানে ৬৫ বছর বয়সী বিল ও ৫৬ বছর বয়সী মেলিন্ডার বিয়ে হয়েছিল ১৯৯৪ সালে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, তাদের দুজনের পরিচয় হয় মাইক্রোসফটেই।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির তথ্যানুযায়ী, মাইক্রোসফট করপোরেশনের যাত্রা শুরু হয়েছিল ১৯৭৫ সালে। এর এক যুগ পর আনুষ্ঠানিক সাক্ষাৎ হয়েছিল তাদের। ১৯৮৭ সালে প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে মাইক্রোসফটে যোগ দিয়েছিলেন মেলিন্ডা। ওই বছরই প্রতিষ্ঠানের একটি আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে যোগ দিয়েছিলেন তারা। এ ঘটনা ঘটেছিল যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে। তখন কোম্পানিটির সিইও ছিলেন বিল।

এরপর দুজনের সামনে এগিয়ে যাওয়া। শুরু হয় তাদের তুমুল প্রেম। নেটফ্লিক্সে প্রচারিত এক তথ্যচিত্রে বিলগেটস বলেছেন, আমরা একে অপরের খুব খেয়াল রাখতাম। এখানে দুটি সম্ভাবনা ছিল। হয় আমাদের প্রেমে বিচ্ছেদ হবে, নয়তো আমাদের বিয়ে করতে হবে।

মেলিন্ডা বলেন, তিনি বিল গেটসকে একজন সুশৃঙ্খল মানুষ হিসেবে আবিষ্কার করেছিলেন। এমনকি তাকে বিয়ে করার পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তিও দিয়েছিলেন বিল।

এরপর প্রেম আরও গভীর হয়েছে। প্রেম শুরুর সাত বছর পর ১৯৯৪ সালে তারা বিয়ে করেন। হাওয়াই দ্বীপের লানাইয়ে হয়েছিল সেই আয়োজন। এরপর মাইক্রোসফট বড় হয়েছে। তবে গত বছর তারা এ প্রতিষ্ঠান থেকে অবসরে যান, ব্যস্ত হয়ে পড়েন দাতব্যকাজে। এ জন্য ২০০০ সালেই, অর্থাৎ অবসরের আগেই গড়ে তুলেছিলেন বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন। এ ফাউন্ডেশন বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে কাজ করছে। বিশ্বজুড়ে সংক্রামক রোগব্যাধির বিরুদ্ধে লড়াই ও শিশুদের টিকাদানে উৎসাহিত করতে কোটি কোটি ডলার ব্যয় করছে এ ফাউন্ডেশন।

তবে যে পথ বেঁধে দিয়েছিল বন্ধন, তার বিচ্ছেদের ঘোষণা এল মঙ্গলবার। দুজনার দুটি পথ দুটি দিকে গেল বেঁকে। দীর্ঘ ২৭ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন বিল ও মেলিন্ডা। টুইটার বার্তায় তারা এ ঘোষণা দিয়েছেন। এই দম্পতির তিন সন্তান রয়েছে।

মাইক্রোসফট কর্পোরেশনের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটসের টুইটার অ্যাকাউন্টে এক বিবৃতিতে দুজন বলেন, আমাদের সম্পর্ক নিয়ে অনেক চিন্তা ও কর্মের পর আমরা বিয়ের ইতি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

আমাদের জীবনের পরবর্তী পর্বে দম্পতি হিসেবে একসঙ্গে জীবন এগিয়ে নিতে পারব বলে আমরা আর বিশ্বাস করি না। নতুন জীবনের পথে চলা শুরুর কালে আমাদের পরিবারের জন্য একান্ত পরিসর চাইছি।

উল্লেখ্য, মাইক্রোসফট করপোরেশনের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস বিশ্বের চতুর্থ শীর্ষ ধনী। মাইক্রোসফটের সাবেক ম্যানেজার মেলিন্ডা বৈশ্বিক স্বাস্থ্য ইস্যু ও নারীদের সমঅধিকার প্রতিষ্ঠায় সোচ্চার। এ দম্পতির বিচ্ছেদের খবরে ঝুঁকিতে আছে বিল গেটসের ১৪ হাজার ৫৮০ কোটি ডলার মূল্যের সম্পদের স্থায়িত্ব। বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ দাতব্য কার্যক্রম নিয়েও শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলা ও নারী অধিকার প্রতিষ্ঠার প্রচারে বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন ৫ হাজার কোটি ডলারের বেশি অর্থ দান করেছে।

বিচ্ছেদের খবরে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় রদবদলের শঙ্কা করা হলেও বিল ও মেলিন্ডা জানিয়েছেন, এটি তাদের বিশাল জনহিতকর কাজের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না।

ফাউন্ডেশনের এক মুখপাত্র ইমেইলে পাঠানো বিবৃতিতে বলেন, বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি ও ট্রাস্টি থাকবেন বিল ও মেলিন্ডা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ