ঝুঁকিপূর্ণ সেতু নিয়ে ঠেলাঠেলি, সংস্কার করলেন ওসি

ঢাকা, সোমবার   ১০ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৭ ১৪২৮,   ২৭ রমজান ১৪৪২

ঝুঁকিপূর্ণ সেতু নিয়ে ঠেলাঠেলি, সংস্কার করলেন ওসি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:৫৩ ৪ মে ২০২১   আপডেট: ০৪:০৫ ৪ মে ২০২১

ঝুঁকিপূর্ণ সেতু সংস্কার করে দিলেন ওসি

ঝুঁকিপূর্ণ সেতু সংস্কার করে দিলেন ওসি

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বধ্যভূমি সংলগ্ন সংযোগকারী একমাত্র বেইলি সেতুর একপ্রান্তে একটি স্লাব ভেঙে গর্তের সৃষ্টি হয়। এতে প্রতিনিয়তই ঘটছিল ছোটখাটো দুর্ঘটনা। সেতুটি নিজেদের আওতায় না বলে দাবি করে এলজিইডি ও সওজ বিভাগ। দুই বিভাগের এমন ঠেলাঠেলিতে অবশেষে সেতুটির সংস্কার করে দিয়েছেন রাজাপুর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম।

ব্যক্তিগত উদ্যোগে সোমবার রাতে সেতুটি সংস্কার করে উপজেলাব্যাপী প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি। এদিন দুপুর থেকে সেতুর দুর্ভোগের কিছু ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়। বিষয়টি নজরে আসে রাজাপুর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলামের। এরপর ব্যক্তিগত উদ্যোগে স্থানীয় ওয়ার্কশপের সঙ্গে কথা বলে সংস্কার করে দেন তিনি। 

ওসি মো. শহিদুল ইসলাম জানান, জনসাধারণের চলাচলের সুবিধার্থে এবং দুর্ঘটনামুক্ত রাখতে মানবিক দিক থেকে সামান্য চেষ্টা করেছি। যেহেতু সেতুটি দিয়ে প্রতিদিন হাজারো মানুষ যাতায়াত করেন, তাই বিপদমুক্ত থাকতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে মেরামত করেছি।

এদিকে, সড়ক ও জনপদ বলছে সেতুটি তাদের আওতায় না। এলজিইডিও বলছে সেতুটি তাদের আওতায় নয়। দুই বিভাগের ঠেলাঠেলিতে সংস্কার হচ্ছিল না সেতুটি। এ নিয়ে এলাকাবাসীর প্রশ্ন তাহলে সেতুটি কার দায়িত্বে? এর সংস্কার কোন দফতর করবে? তবে সব প্রশ্নের সমাধান দিলেন ওসি মো. শহিদুল ইসলাম।

রাজাপুর এলজিইডি প্রকৌশলী মো. গোলাম মোস্তফা জানান, সড়ক এলজিইডির হলেও স্টিল সেতুর দায়িত্ব আমাদের নয়। ঝালকাঠি সড়ক ও জনপদের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. হুমায়ুন কবির বলেন, সড়ক আমাদের নয়, তাই স্টিল সেতুর দায়ও আমাদের নয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর