সমর্থকদের বিক্ষোভে ম্যানইউ-লিভারপুলের ম্যাচ স্থগিত

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৩ ১৪২৮,   ২৩ রমজান ১৪৪২

সমর্থকদের বিক্ষোভে ম্যানইউ-লিভারপুলের ম্যাচ স্থগিত

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:০০ ৩ মে ২০২১  

সমর্থকদের বিক্ষোভে ম্যানইউ-লিভারপুলের ম্যাচ স্থগিত

সমর্থকদের বিক্ষোভে ম্যানইউ-লিভারপুলের ম্যাচ স্থগিত

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মালিক গ্লাজারের পরিবারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শনকারী ক্লাব সমর্থকরা ওল্ড ট্রাফোর্ডের পিচে হানা দেয়ার ঘটনায় রোববার স্থগিত হয়ে গেছে রেড ডেভিলসদের সঙ্গে লিভারপুলের মধ্যকার প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ।

‘আমরা গ্লাজারদের বিদায় দেখতে চাই’- স্লোগান দিতে দিতে শতশত সমর্থক মাঠের ভেতর ঢুকে যায়। বিপুল সংখ্যক সমর্থক স্টেডিয়ামের বাইরে সমবেত হয়। এ সময় পুলিশ তাদের সরিয়ে দিতে চাইলে তারা পুলিশের সঙ্গে হাঙ্গামায় জড়িয়ে পড়ে।

ইউনাইটেডের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,‘মাঠের চতুর্দিকে যেভাবে বিক্ষোভ প্রদর্শিত হচ্ছে তাতে নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনায় রেখে পুলিশ, প্রিমিয়ার লিগ, ট্রাফোর্ড কাউন্সিল এবং ক্লাবের সঙ্গে আলোচনা করে লিভারপুলের বিপক্ষের ম্যাচটি স্থগিত করা হয়েছে’।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়,‘আমাদের সমর্থকরা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রতি খুব বেশী আবেগি। আমরাও তাদের এই মুক্ত প্রতিবাদের অধিকারের প্রতি এবং শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের প্রতি সম্পুর্ন ভাবে শ্রদ্ধাশীল।

যদিও এমন একটি প্রতিবন্ধকতার জন্য আমরা ব্যথিত। যা অন্য ভক্ত, কর্মী ও পুলিশকে সমস্যায় ফেলেছে। আমাদের সহায়তা করার জন্য পুলিশকেও ধন্যবাদ জানাই এবং এই বিষয়ে পরবর্তীতে তাদের তদন্তকাজে সহায়তা করব’।

রোববার স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে চারটায় শুরু হবার কথা ছিল ম্যাচটি। কিন্তু স্থগিত হবার চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এক ঘণ্টারও বেশী সময় পর।

এক বিজ্ঞপ্তিতে প্রিমিয়ার লিগ জানায়, ‘ওল্ড ট্রাফোর্ডের প্রত্যেকের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা আমাদের কাছে অতন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সমর্থকদের অনুভুতি বুঝতে পারছি, তাদের প্রতি আমাদের অবশ্যই শ্রদ্ধাবোধ রয়েছে। তবে সহিংসতা বা অপরাধমুলক কর্মাকন্ড ও ক্ষয়ক্ষি সহ কোভিড-১৯ এর লঙ্ঘনের ঘটনায় আমরা নিন্দা জানাচ্ছি।

নিজেদের মতামত প্রকাশ করার অনেক উপায় ভক্তদের রয়েছে। তবে এই ধরনের আগ্রাসন কোনভাবেই কাম্য নয়’।

রোববারের ওই ম্যাচে ইউনাইটেড হেরে গেলে শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যেত নগর প্রতিদ্বন্দ্বি ম্যানচেস্টার সিটির। তবে স্থগিত হয়ে যাওয়া ম্যাচের নতুন সময়সূচি এখনো নির্ধারন হয়নি।

লিভারপুল এক বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে যে ম্যাচ স্থগিতের বিষয়ে তাদের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। কারণ খেলোয়াড় ও কর্মীদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা ছিল না।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়,‘আমাদের কাছে মানুষের নিরাপত্তাই প্রথম। ম্যাচে অংশগ্রহনকারী, কর্মী ও কর্মকর্তাদের জন্য বিশেষ অগ্রাধিকার ভিত্তিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। রোববার সেখানে সেই ধরনের পরিবেশ বা নিরাপত্তার কোন নিশ্চয়তা ছিলনা’। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস