আলোকিত দেশ গড়ার স্বপ্নে ‘রোর ফর স্ট্রিট চিল্ড্রেন’

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৩ ১৪২৮,   ২৩ রমজান ১৪৪২

আলোকিত দেশ গড়ার স্বপ্নে ‘রোর ফর স্ট্রিট চিল্ড্রেন’

সানজিদা জাহিন প্রিমা, এমসি কলেজ  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২৫ ৩ মে ২০২১   আপডেট: ২০:৪৬ ৩ মে ২০২১

‘শীতে ফুটুক নগরফুল’ প্রজেক্টের আওতায় বাচ্চাদের শীতের কবল থেকে রক্ষা করতে শীতকালীন বস্ত্রসামগ্রী দিচ্ছেন সংগঠনের একজন সদস্য

‘শীতে ফুটুক নগরফুল’ প্রজেক্টের আওতায় বাচ্চাদের শীতের কবল থেকে রক্ষা করতে শীতকালীন বস্ত্রসামগ্রী দিচ্ছেন সংগঠনের একজন সদস্য

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ইতিবাচক ব্যবহারে সমাজের উন্নয়ন সম্ভব তার চাক্ষুষ প্রমাণ এই ‘রোর ফর স্ট্রিট চিল্ড্রেন’। সংক্ষেপে আরএসসি। ‘প্রযুক্তিনির্ভর প্রজন্ম সমাজ নিয়ে ভাবে না’ এমন চিন্তাধারাকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে সদর্পে এগিয়ে চলেছে তারুণ্যের সংগঠনটি।

শুরু থেকেই তারা সংঘবদ্ধ হয়েছে অনলাইনে, কার্যক্রমের বিস্তৃতিও মূলত ঘটেছে অনলাইনে। আর তাইতো এক বছরের কম সময়ে পুরো দেশের প্রায় ৩০০ জন শিক্ষার্থী একই প্ল্যাটফর্মে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।

দেশের প্রথম পথশিশুভিত্তিক অনলাইন কন্টেস্ট ‘ঝরাবকুলের গল্প শুনো’তে এই সংগঠনটি দেশের খ্যাতিনামা লেখক কিঙ্কর আহসান থেকে শুরু করে ওপার জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক পৌষালী সেনগুপ্তাসহ অনেক সাহিত্যিকের সান্নিধ্য পেয়েছে।

শিক্ষণীয় ও সমসাময়িক নানা বিষয়ে আলোচনা করতে নিয়মিত আরএসসি এর ফেসবুকে লাইভে যুক্ত হন স্বকাজে সর্বজনন্দিত অনেকে গুনী মানুষ। 

তবে অনলাইনের কার্যক্রমেই থেমে নেই পরিশ্রমী এই তরুণরা। তারা এই কঠিন মহামারির মধ্যেও সিলেট, চট্রগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা,সু নামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, খাগড়াছড়ি আর ঢাকার মধ্যে প্রায় ৩০টি প্রজেক্ট বাস্তবায়ন করেছে।

এছাড়া  আরএসসি এর ‘নগরফুল পাঠশালা’ সিলেট বিভাগের ৪টি জেলায় সম্পুর্ণ বিনামূল্যে সাপ্তাহিক প্রাথমিক শিক্ষার পাঠদান অব্যাহত আছে।

প্রজেক্টের মধ্যে অন্যতম হলো ‘আই হ্যাব ড্রিম’, যেখানে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের অপূর্ণকৃত ইচ্ছে একদিনের জন্য হলে ও বাস্তবে রুপ দেয়ার চেষ্টা করা হয়। প্রত্যন্ত এলাকার অবহেলিত শিশুদের লুকায়িত প্রতিভা প্রকাশ করতে সহায়তা করছে তাদের, ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ প্রজেক্ট।
‘শীতে ফুটুক নগরফুল’ প্রজেক্টের আওতায় বাচ্চাদের শীতের কবল থেকে রক্ষা করতে শীতকালীন বস্ত্রসামগ্রী, ভ্যাসলিন দেয়া হয়েছে।

আরএসসি’র করা এসব প্রজেক্টের মধ্যে উল্লেখযোগ্য প্রজেক্ট হলো ‘হ্যাপি ১০০’- একদিনে ২০০ বাচ্চার আহার,স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তিতে ‘ফিরে দেখা ৫০’ ইভেন্ট যা দেশের ৫টি বিভাগসহ মোট ৯টি জোনে অনুষ্টিত হয়।

করোনার এই সময়ে প্রত্যেকটা প্রজেক্টে মাস্ক বিতরণসহ বিশেষ ভাবে গুরুত্ব দেয়া হয় বাচ্চাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার দিকটি।

বাচ্চাদের আহার, কাপড়, শীতের সামগ্রী, প্রাথমিক শিক্ষা থেকে শুরু করে নিত্যদিনের সবকিছুই কোনো রকম স্পন্সরশিপ ছাড়াই চালিয়ে যাচ্ছে স্কুল-কলেজের পড়ুয়া কিছু শিক্ষার্থী।

সংগঠন এর বর্তমান ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রতিষ্টাতা মুরারিচাঁদ কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ইমাদ উদ্দিন বলেন, একটা মেসেঞ্জার গ্রুপ কল থেকে যাত্রা শুরু করা আরএসসি, পথশিশু ভিত্তিক দেশের সবচেয়ে ফার্স্ট গ্রয়িং আপ ইয়ুথ কমিউনিটি হয়ে উঠবে তা সত্যি ভাবিনি! এই আরএসসির প্রধান বিশেষত্ব হচ্ছে- এখানে প্রতিনিয়ত দেশ আর দশের জন্য কিছু স্বপ্নবাজ তরুণ প্রতিনিয়ত নিজেকে নিংড়ে দিচ্ছে বিনা স্বার্থে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম