চুয়াডাঙ্গায় বোরো ধান সংগ্রহ শুরু

ঢাকা, রোববার   ০৯ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৭ ১৪২৮,   ২৬ রমজান ১৪৪২

চুয়াডাঙ্গায় বোরো ধান সংগ্রহ শুরু

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১১ ৩ মে ২০২১  

চুয়াডাঙ্গার ডিসি নজরুল ইসলাম সরকার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন

চুয়াডাঙ্গার ডিসি নজরুল ইসলাম সরকার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন

চুয়াডাঙ্গায় চলতি সালের বোরো ধান সংগ্রহের কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় চুয়াডাঙ্গার ডিসি নজরুল ইসলাম সরকার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রেজাউল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এডিসি (সার্বিক) মনিরা পারভীন, চুয়াডাঙ্গা সদরের ইউএনও মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার সুফি মো. রফিকুজ্জামান, এনএসআই এর উপপরিচালক জামিল সিদ্দিক, জেলা বাজার কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আমজাদ হোসেন, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শিবানী সরকার, জান্নাতুল ফেরদৌস, সবুজ কুমার বসাক, হাবিবুর রহমান, ফিরোজ হোসেন, নূর পেয়ারা বেগম, নজরুল ইসলাম, রিফাত জাহান, মোহাম্মদ সাদাত হোসেন, শাহিদুল আলম প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডিসি নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, চলতি বোরো মৌসুমে যেকোনো মূল্যে সরকারিভাবে ধান সংগ্রহের লক্ষমাত্রা অর্জনে সফল হতে হবে। এ ক্ষেত্রে মাঠ পর্যায়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সতর্কতার সঙ্গে সচেষ্ট থাকতে হবে। কৃষকের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা যাবে না। এখানে ধান দিতে কেউ যেন বিরক্তবোধ না করে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। অনেক সময় খাদ্য দফতরের লোকজনের খারাপ ব্যবহারের কারণে কৃষকেরা ধান দিতে আসতে চায় না। তাছাড়া, ব্যাংক থেকে টাকা নেয়াকে ঝামেলা মনে করে। কিন্তু ভালো ব্যবহারের মাধ্যমে সেই ধারণা পাল্টে ফেলতে হবে। কেউ খারাপ ব্যবহার করছে, বা খারাপ ব্যবহারের অভিযোগ পেলে আমি তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। চাষিদের সর্বাত্মক সহেযাগিতা করতে হবে।

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রেজাউল ইসলাম জানান, সরকার চলতি বোরো মৌসুমে চুয়াডাঙ্গা জেলার চার উপজেলার সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে মোট ৪ হাজার ৭৯৬ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। চলতি মৌসুমে বোরো ধান ক্রয়ের জন্য সরকার নির্ধারিত মূল্য তালিকা অনুযায়ী প্রতি কেজি ধান ২৭ টাকা। ধান সংগ্রহ ২৮ এপ্রিল থেকে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। 

তিনি আরো জানান, এবারে জেলায় সরকার ৭ হাজার ৬৮২ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহ করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত হবে কবে নাগাদ আনুষ্ঠানিকভাবে চাল ক্রয় শুরু করা হবে। এবারে সিদ্ধ চাল ৪০ টাকা এবং আতব চাল ৩৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ