অভিষেকেই জয়াবিক্রমের বিশ্বরেকর্ড

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৩ ১৪২৮,   ২৩ রমজান ১৪৪২

অভিষেকেই জয়াবিক্রমের বিশ্বরেকর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৪১ ৩ মে ২০২১   আপডেট: ১৬:০৫ ৩ মে ২০২১

শ্রীলংকার অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার প্রবীন জয়াবিক্রম

শ্রীলংকার অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার প্রবীন জয়াবিক্রম

শ্রীলংকা সফরে সিরিজের প্রথম ম্যাচে সমানে-সমান লড়ে ড্র করলেও, দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের মিলল ২০৯ রানের বিশাল পরাজয়। শ্রীলংকার করা এক ইনিংসের সমান রানই দুই ইনিংস মিলে করতে পারেনি বাংলাদেশ দল।

দুই ইনিংসেই শ্রীলংকার অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার প্রবীন জয়াবিক্রমের স্পিন ঘূর্ণিতে কুপোকাত হয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেটের পর দুই ইনিংসে মিলিয়ে জয়াবিক্রমের শিকার ১১ উইকেট।

দুই ইনিংস মিলে ১৭৮ রান খরচায় ১১ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন ২০ বছর বয়সী এ স্পিনার, পাশাপাশি গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। টেস্টের অভিষেক ম্যাচে বাঁহাতি স্পিনারদের মধ্যে এটিই সেরা বোলিংয়ের বিশ্বরেকর্ড। এছাড়া সবমিলিয়ে দশম সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড গড়েছেন জয়াবিক্রম।

অভিষেক টেস্টে এতদিন ধরে বাঁহাতি স্পিনারদের মধ্যে সেরা বোলিং ছিল আলফ ভ্যালেন্টাইনের। ১৯৫০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যানচেস্টার টেস্টে ২০৪ রানে ১১ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। প্রায় ৭১ বছর পর সেই রেকর্ড এখন নিজের দখলে নিলেন জয়াবিক্রম।

সবমিলিয়ে টেস্ট অভিষেকে ১০ বা তার বেশি উইকেট নেয়া ১৬তম বোলার জয়াবিক্রম। সবশেষ ২০০৮ সালে ভারতের বিপক্ষে নিজের অভিষেক ম্যাচে এ কীর্তি গড়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার অফস্পিনার জেসন ক্রেজা। শ্রীলংকার প্রথম বোলার হিসেবে অভিষেকে ১০+ উইকেট শিকারের তালিকায় নাম তুলেছেন জয়াবিক্রম।

অভিষেক ম্যাচে সেরা বোলিংয়ের বিশ্বরেকর্ডটা ভারতের সাবেক স্পিনার নরেন্দ্র হিরওয়ানির দখলে। ১৯৮৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চেন্নাই টেস্টে ১৩৬ রানে ১৬ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। দুই ইনিংসে তার শিকার ছিল যথাক্রমে ৮/৬১ ও ৮/৭৫।

এছাড়া নিজের টেস্ট অভিষেকেই ১৬ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন আর মাত্র একজন বোলার। ১৯৭২ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লর্ডসে ১৩৭ রান খরচায় ১৬ উইকেট নেন অস্ট্রেলিয়ার বব ম্যাসি। দুই ইনিংসে তার বোলিং ফিগার ছিল ৮/৮৪ ও ৮/৫৩।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস