ভোটে হারলেও যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন মমতা!

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৩ ১৪২৮,   ২৩ রমজান ১৪৪২

ভোটে হারলেও যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন মমতা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৯:১৬ ৩ মে ২০২১  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পশ্চিমবঙ্গে টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠনের পথে বেশ এগিয়ে আছে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস। বাংলার ২৯২টি আসনের মধ্যে ইতোমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল ২১৩টি আসনে জয়লাভ করেছে। কিন্তু নিজ আসন নন্দীগ্রামে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) শুভেন্দু অধিকারীর কাছে হেরে গেছেন মমতা। তাতে কংগ্রেস সরকার গঠন করলেও নেত্রী মমতা মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন কিনা সেটা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা-কল্পনা।

তবে ভারতীয় সংবিধানের অনুচ্ছেদ ১৬৩ ও ১৬৪ অনুযায়ী ভোটে হেরে গেলেও মমতার মুখ্যমন্ত্রী হতে বাঁধা নেই। কারণ, নির্বাচিত প্রতিনিধিরাই মূখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করবেন। সেক্ষেত্রে মমতাই যে হতে যাচ্ছেন তৃতীয় মেয়াদের মুখ্যমন্ত্রী সেটা অনুমেয়।

কারণ, মুখ্যমন্ত্রী হতে সংবিধানে উল্লেখিত যোগ্যতা হলো তাকে অবশ্যই ভারতের নাগরিক হতে হবে, বয়স ২৫ এর উর্ধ্বে হতে হবে, সুস্থ মস্তিস্কের হতে হবে এবং বিধানসভার সদস্য হতে হবে। এর মধ্যে তিনটা যোগ্যতা মমতার রয়েছে।

এখন মমতা যেহেতু নির্বাচনে হেরে গেছেন এবং তার দলের নির্বাচিত সদস্যরা তাকে নেতা নির্বাচিত করতে পারবেন এবং তিনি মুখ্যমন্ত্রীও হতে পারবেন।

তবে সংবিধান অনুযায়ী হেরে যাওয়া কিংবা সুস্থ্য স্বাভাবিক কোনো সাধারণ ব্যক্তি মুখ্যমন্ত্রী পদে ৬ মাসের অধিক সময় থাকতে চাইলে তাকে কোনো একটি আসন থেকে ১৮০ দিনের মধ্যে জয়লাভ করে আসতে হবে। সেটা দুইভাবে হতে পারে। প্রথমত, যদি কোনো খালি আসন থাকে সেখান থেকে নির্বাচন করে। আর দ্বিতীয়ত, যদি কোনো খালি আসন না থাকে তাহলে তার দলের মধ্য থেকে একজন সদস্য নিজ আসন থেকে পদত্যাগ করে সেই আসন থেকে নেতাকে নির্বাচন করার সুযোগ করে দিয়ে ও নির্বাচিত করে এনে।

তবে মমতার জন্য সুযোগ রয়েছে এবং সেক্ষেত্রে দলের কাউকে পদত্যাগ করে আসন খালি করে দিতে হবে না। এবারের নির্বাচনে দুটি আসনে প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে ভোট হয়নি। পরবর্তী ছয় মাস তথা ১৮০ দিনের মধ্যে মমতা ওই দুই আসনের যেকোনো একটি থেকে নির্বাচিত হয়ে আসলেই তিনি লম্বা সময়ের জন্য আবার মুখ্যমন্ত্রী পদে থাকতে পারবেন।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে মমতা যদি ওই আসনেও হেরে যান, তাহলে? তাহলে নিয়ম অনুযায়ী তাকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিতে হবে। ধারণা করা হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের ভবিষ্যত নেতৃত্বের কথা চিন্তা করে তার ভাইয়ের ছেলে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ডায়মন্ড হারবার থেকে নির্বাচিত তরুণ প্রাণ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখ্যমন্ত্রী পদে দেখা যেতে পারে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ