পিরিয়ডের সময় এসব খাবার খেলেই বিপদ
15-august

ঢাকা, বুধবার   ১৭ আগস্ট ২০২২,   ২ ভাদ্র ১৪২৯,   ১৮ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

পিরিয়ডের সময় এসব খাবার খেলেই বিপদ

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৪৪ ২৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৩:৪৭ ২৭ অক্টোবর ২০২০

ছবি: পিরিয়ডের সময় এই খাবারগুলো এড়িয়ে চলুন

ছবি: পিরিয়ডের সময় এই খাবারগুলো এড়িয়ে চলুন

পিরিয়ড নারী জীবনের খুব স্বাভাবিক ঘটনা। পিরিয়ডের সময় শরীর ও মনে বিভিন্ন ধরনের পরিবর্তন দেখা দেয়। এমনকি আরো বিভিন্ন শারীরিক পরিবর্তন দেখা দেয়।

মূলত হরমোনের ওঠানামার কারণেই এমন হয়ে থাকে। খাবার হরমোনের ওপর সরাসরি প্রভাব ফেলে। তাই এ সময় খাবার খাওয়ার ক্ষেত্রে সচেতন হওয়া জরুরি। 

পিরিয়ডের সময় কিছু খাবার যেমন ভালো ফলাফল দেয়। তেমনি কিছু খাবার আছে যেগুলো আপনার শরীরের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে। তাহলে জেনে নিন এই সময় কোন খাবারগুলো খাবেন না।   

দুধ  
পিরিয়ডের ব্যথায় দুধের তৈরি খাবার না খাওয়াই ভালো। কেননা দুধে প্রাকৃতিকভাবেই আরাসিডোনিক অ্যাসিড থাকে। যা প্রোস্টাগ্ল্যান্ডিন্সকে (এক ধরনের হরমোন) উদ্দীপিত করে। ফলে ব্যথার তীব্রতা বাড়ে।

ব্যথানাশক ওষুধ
পিরিয়ডের ব্যথা কমাতে নিয়মিত ব্যথানাশক ওষুধ খাবেন না। এটা খুবই স্বাভাবিক। ঘন ঘন ব্যথানাশক ওষুধ না খেয়ে বরং গরম পানির সেঁক দিতে পারেন। গ্রিনটি খেতে পারেন। এতে আপনার পেট ব্যথা অনেকটাই কমে যাবে। সয়াবিন, শাক, বাদাম ও চিয়া বীজ খেতে পারেন। 

চা-কফি 
এ সময় শরীর থেকে রক্ত বের হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি বের হয় আয়রন। যা শরীরে ক্লান্তি ও অবসাদ সৃষ্টি করে। ক্যাফেইন শরীরের রক্তনালিকে সংকুচিত করে এবং এখানে জরায়ুও অন্তর্গত। ফলে ব্যথা আরও তীব্র হয়। তাই এ সময়ে কফি, চা ও সোডার পাশাপাশি ক্যাফেইনের অন্যান্য খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

আরো পড়ুন: নারীদের পিসিওএস এর সমস্যা দূর করবে এসব খাবার  

কার্বোহাইড্রেট 
পিরিয়ড শুরু হওয়ার দু-এক সপ্তাহ আগ থেকে হরমোনের মাত্রার পরিবর্তন ঘটে। ইস্ট্রোজেনের মাত্রা বেড়ে যায় এবং প্রোজেস্টেরনের মাত্রা কমে। হরমোনের এ পরিবর্তন শরীরে স্বাভাবিকের তুলনায় পানিভাব বাড়ায় বলে জানান যুক্তরাষ্ট্রের আরেক পুষ্টিবিদ অ্যালিসা রামসে। নোনতা খাবারের মতো অতিরিক্ত কার্বোহাইড্রেট গ্রহণ আরো বেশি ফোলাভাব সৃষ্টি করে।

লাল মাংস 
পিরিয়ডের সময়ে দুর্বলতা দেখা দেয়। আর এ সময়ে আয়রন লাভের জন্য মাংস খাওয়ার উপকারিতার কথা শুনে থাকবেন। তার মানে এই নয় যে, দুধের খাবার, বার্গার, মিটবল বা প্রক্রিয়াজাত খাবার খাবেন। কারণ এতে থাকে অ্যারাচিডোনিক অ্যাসিড। এটি শক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি পিরিয়ডের সময়কার ব্যথা বাড়িয়ে দেয়। 

চিনি সমৃদ্ধ খাবার 
প্রক্রিয়াজাত ও চিনিসমৃদ্ধ খাবার যেমন- কেক, বিস্কুট, চকোলেট বার, সোডা (নানান স্বাদযুক্ত দই, সস) ইত্যাদি খাবার ইস্ট্রোজেন ও টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়।  

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে

English HighlightsREAD MORE »