দর্শক সত্যি আমাদের সিনেমাকে পছন্দ করেছেন: ইমন

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২,   ১২ আশ্বিন ১৪২৯,   ২৯ সফর ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

দর্শক সত্যি আমাদের সিনেমাকে পছন্দ করেছেন: ইমন

রুম্মান রায় ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৪৬ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দেশব্যাপী ১৬ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে নির্মাতা সাইদুল ইসলাম রানার প্রথম সিনেমা ‘বীরত্ব’। এ সিনেমা দিয়েই ঢাকাই সিনেমায় অভিষেক হচ্ছে নবাগত অভিনেত্রী নিশাত নাওয়ার সালওয়ার। তার সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক মামনুন হাসান ইমন।

সিনেমার বিভিন্ন দিক এবং প্রত্যাশা নিয়ে ‘ডেইলি বাংলাদেশ’-এর মুখোমুখি হয়ে ছিলেন মামনুন হাসান ইমন। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রুম্মান রায়।

ডেইলি বাংলাদেশ: বীরত্ব’ নিয়ে কেমন সাড়া পাচ্ছেন?
মামনুন হাসান ইমন:
অবিশ্বাস্য রকমের ভালো সাড়া পাচ্ছি। আমি যখন একটা ভালো ক্যারেক্টার পাই- যে সিনেমায় আমাকে ভালো মতো উপস্থাপন করা হয়, সেই সিনেমাটা দর্শকরা আমাকে সাদরে গ্রহণ করেন। যে চরিত্রটা করে আমার নিজেরই ভালো লাগে না- সেটা দর্শকরাও পছন্দ করেন না। তাই এখন থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছি ভালো গল্পের ভালো চরিত্র না পেল অভিনয় করবো না।

মামনুন হাসান ইমন

‘পাসওয়ার্ড’ সিনেমায় মালেক ভাইয়ের সঙ্গে যে কাজটা করেছিলাম সেটা দর্শকরা হলে ইমন ইমন করেছেন এবং শাকিব ভাই নিজেও আমার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন। এজন্য আমি শাকিব ভাইকে ধন্যবাদ দিতে চাই। তেমনি ‘বীরত্ব’ সিনেমায় আমাকে এমন একটি চরিত্রে কাজ করার সুযোগ করে দেয়ার জন্য রানা ভাই, রঞ্জন দাদাকে ধন্যবাদ দিতে চাই। ‘পাসওয়ার্ড’ এর পর এখানেও একই অবস্থা। দর্শকরা ইমন ইমন করে চিল্লাচ্ছে। মন থেকে অনেক ভালো লেগেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ: এতোটা প্রত্যাশা করেছিলেন?
মামনুন হাসান ইমন:
প্রথমই যখন এই সিনেমার গল্প শুনি তখনই আমি বুঝতে পেরেছি একটা চ্যালেঞ্জিং ক্যারেক্টার প্লে করতে যাচ্ছি। তখনই চিন্তা আসলো আমি যদি ভালো মতো কাজটা করতে পারি, তাহলে দর্শক আমাকে পছন্দ করবেন। আর যেহেতু গল্পটা ভালো, মানুষ এমনিতেই পছন্দ করবেন। এখন আমাদের সিনেমায় সুবাতাস বইছে তাই প্রত্যাশা ছিল আমাদের সিনেমাটি ভালো করবে। আর গতকালই তার বাস্তব চিত্রটা দেখলাম, দর্শক সত্যি আমাদের সিনেমাকে পছন্দ করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ: সহকর্মীরা হলে সিট না পেয়ে সিঁড়িতে বসে দেখেছেন, এই বিষয়টি কেমন লেগেছে?
মামনুন হাসান ইমন:
নিপুণ, সালাওয়া আর জেসমিন আপা তারা আরেকটি সিনেমা হল ভিজিট করে একটু দেরিতে আসছিলেন। তখন হলে দর্শক আসন পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল। গতকাল সিনেপ্লেক্স হাউসফুল গেছে। তখন তারা সিট না পেয়ে সিঁড়িতে বসে দেখেছেন। তাদের জন্য খারাপ লেগেছে। আমি হলেও দর্শকের জন্য সিট ছেড়ে নিচে বসেই দেখতাম। দর্শকরা হলেন আমাদের সিনেমার প্রাণ। একটা সিনেমা দেখার জন্য দশকপূর্ণ হয় সিট না পেয়ে শিল্পীরা দাঁড়িয়ে থাকে এটাতো ভালো লাগে।

ডেইলি বাংলাদেশ: ঢাকার বাইরে হল পরিদর্শনের কোনো পরিকল্পনা আছে?
মামনুন হাসান ইমন:
আমাদের ইচ্ছা আছে ঢাকার বাইরে দেশের বিভিন্ন হলে গিয়ে সিনেমাটি দেখার। কারণ এটা এমন একটি সিনেমা যেটা ঢাকার বাইরের দর্শকের সঙ্গেও দেখা উচিত।

মামনুন হাসান ইমন

ডেইলি বাংলাদেশ: সিনেমাটির প্রচারণা কি পর্যাপ্ত পরিমাণ করতে পেরেছিলেন?
মামনুন হাসান ইমন:
যতোটুকুই করেছি মনে হয় আরেকটু করতে পারলে আরো ভালো হত। আমরা চেষ্টা করেছি আমাদের জায়গা থেকে যতটুকু সম্ভব।

ডেইলি বাংলাদেশ: নতুন মুখ সালওয়ার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কেমন ছিল?
মামনুন হাসান ইমন:
নতুন হিসেবে সালওয়া বেশ ভালো করেছে। তার সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা ভালো ছিল। আর দর্শকরাও আমাদের  রসায়ন পছন্দ করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ: রানার নির্দেশনায় কাজ করতে কেমন লেগেছে?
মামনুন হাসান ইমন:
রানা ভাইতো চমৎকার একজন মানুষ। উনি অনেক ডেডিকেশন আর প্রতিবন্ধকতার মাঝে কাজ করেছেন এবং এই সিনেমাটা বানিয়েছেন। এজন্য আমি ধন্যবাদ ও একই সঙ্গে তাকে অভিনন্দন জানাই। রানা ভাই ভীষণ কষ্ট করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস

English HighlightsREAD MORE »