সুযোগ পেলে আমিও করবো: মিষ্টি জান্নাত

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ৩০ ১৪২৭,   ২৯ শা'বান ১৪৪২

সুযোগ পেলে আমিও করবো: মিষ্টি জান্নাত

রুম্মান রয় ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:২৮ ২৮ মার্চ ২০২১  

মিষ্টি জান্নাত

মিষ্টি জান্নাত

২০১৪ সালে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত শাহাদাৎ হোসেন লিটন পরিচালিত ‘লাভ ষ্টেশন’ ছবি দিয়ে অভিষেক হয় লাবণ্যময়ী নায়িকা মিষ্টি জান্নাতের। প্রথম ছবিতেই সকলের নজর কাড়তে সক্ষম হোন এই সুহাসিনী। প্রথম ছবির সাফল্যের পর তাকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

চলচ্চিত্রে সাত বছরের ক্যারিয়ারে মিষ্টি জান্নাতের মুক্তি পেয়েছে মোট পাঁচটি চলচ্চিত্র। ‘লাভ ষ্টেশন’ ছাড়াও ২০১৫ সালে নজরুল ইসলাম বাবু পরিচালিত ‘চিনিবিবি’, ২০১৭ সাল সজল আহমেদ পরিচালিত ‘তুই আমার’ ও একই পরিচালকের ২০১৯ সালে ‘তুই আমার রাণী’ মুক্তি পায়। প্রতিটা ছবিতেই মিষ্টির অভিনয় দর্শকরা পছন্দ করেছেন।

চলচ্চিত্রে অভিনয়, নিজের ব্যবসা ও চিকিসাৎ পেশা নিয়ে বেশ ব্যস্ততার মধ্যেই কাটছে তার সময়। এবার তিনি মুখোমুখি হয়েছেন ডেইলি বাংলাদেশ-এর। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রুম্মান রয়। 

সম্প্রতি শাপলা মিডিয়ার একশো সিনেমা নির্মাণে ঘোষণায় আপনার নামও এসেছে। আপনি সেই ব্যানারে কয়টি সিনেমায় কাজ করছেন?
মিষ্টি জান্নাত:
শাপলা মিডিয়ার ছোট বাজেটের সিনেমায় আমি কাজ করবো না। যদি বড় বাজেটের সিনেমা হয় তাহলে কাজ করবো।

চিকিৎসা পেশা নাকি অভিনয়? কোনটা আপনার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ
মিষ্টি জান্নাত:
অভিনয় ও চিকিৎসা পেশা দুইেটা আমার কাছে সমান গুরুত্বপূর্ণ। আমি দু’টোকেই সমান গুরুত্ব দিতে চাই। পাশাপাশি আমার নিজের ব্যবসা আছে সেটাও আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। 

সাত বছরের ক্যারিয়ারে ছবির মুক্তির সংখ্যা কম কেন?
মিষ্টি জান্নাত:
আমি সব সময়ই মানসম্মত কাজ করার ব্যাপারে মনোযোগী ছিলাম। তাই বেছে বেছে কাজ করেছি। সংখ্যার দিকের চেয়ে কাজের মানের দিকে নজর দিয়েছি। যাতে সিনেমায় অভিনয় করে নিজের ক্যারিয়ার খারাপ করতে চাইনি। আমি চেয়েছি যেটাই করিনা কেন দর্শক যেনো সেটা পছন্দ করেন এবং আমার চরিত্রটা তাদের মন ছুঁয়ে যায়।

বর্তমানে কি কি সিনেমায় কাজ করছেন?
মিষ্টি জান্নাত:
বর্তমানে আমি আব্দুল মান্নান গাজীপুরী পরিচালিত ‘কি করে বলবো প্রিয়তমা’ ছবিতে কাজ করছি। ইতোমধ্যে ছবির শুটিং ৭০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। এ সিনেমায় আমার সঙ্গে দুজন নতুন হিরো রয়েছেন। তাছাড়া ভারতীয় একটা ছবির ব্যাপারে কথাবার্তা চলছে। কিছু বিধিনিষেধ থাকায় আপাতত আমি এটা নিয়ে কিছু বলতে চাচ্ছিনা। এছাড়াও আরো দুটি সিনেমার কথাবার্তা চলছে। সবকিছু ফাইনাল হলে জানাবো।

হেভেন মাল্টিমিডিয়া নামে আপনার একটি প্রযোজনা সংস্থা আছে। ২০১৭ সালে এই প্রযোজনা সংস্থা থেকে প্রথম চলচ্চিত্র ‘তুই আমার’ মুক্তি পায়। এরপর আরো দুটি সিনেমা করেন। আপনার প্রযোজনা থেকে নতুন কি সিনেমা হচ্ছে?
মিষ্টি জান্নাত:
আমার কাজিন সজল আহমেদ চারটা সিনেমা বানাচ্ছে। আমি নায়িকা হিসেবে একটা করবো। বাকীগুলোতে অন্য নায়িকারা করবে।

বর্তমানে ওটিটি প্লাটফর্মে অনেকেই কাজ করছেন। এই প্ল্যাটফর্মে কাজ করতে আপনার আগ্রহ আছে?
মিষ্টি জান্নাত:
অবশ্যই আমি কাজ করতে আগ্রহী। এখনো আমার এই প্লাটফর্মে কাজ করা হয়নি। তবে কাজের ব্যাপারে কথাবার্তা চলছে। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আর সুযোগ পেলে আমিও করবো। 

অবসরে কি করতে ভালোবাসেন?
মিষ্টি জান্নাত:
অবসর আমার একদমই পছন্দ না। নিজেকে সবসময় ব্যস্ত রাখতে ভালোবাসি। বিপদে-আপদে মানুষের পাশে দাঁড়াতে ভালো লাগে। অনেকের অনেক রকমের শখ থাকে। কিন্তু আমার শখ হচ্ছে মানুষকে ভালোবাসা, বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়ানো। এটা আমি ছোট থেকেই দেখি আসছি আমাদের পরিবারের মানুষরা আশেপাশের গরীব দুঃখীদের বিপদে দাঁড়াতেন। আম্মুকে দেখি আমি এটা শিখেছি। তাই আমার নিজেরও খুব ভালো লাগে যখন কোনো অসহায় মানুষের জন্য কিছু করতে পারি। আমার আম্মুর জান্নাত সমাজকল্যাণ সংস্থা থেকে আমরা যেমন মানুষের জন্য কিছু করি। তেমনি আমাদের ডাক্তারদের একটা গ্রুপ আছে ‘বিং হিউম্যান ডক্টরস’-এটা থেকেও আমরা অসহায় মানুষদের পাশে এসে দাঁড়াই। এভাবে করে আমি ভবিষ্যৎও অসহায় গরীব মানুষদের পাশে থাকবো।

সামনে নিজের বিয়ে নিয়ে কোনো পরিকল্পনা আছে? 
মিষ্টি জান্নাত:
আপাতত বিয়ে নিয়ে কোনো পরিকল্পনা নেই। তবে পাত্র হিসেবে শান্তশিষ্ট, ভদ্র ছেলেই আমার পছন্দ।এখন আমি নিজের ব্যবসা-বাণিজ্যর পাশাপাশি চলচ্চিত্রে অভিনয়ে অনেক বেশি মনোযোগী।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস