নিজেকে ভালো অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই: তানহা তাসনিয়া

ঢাকা, বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭,   ১৮ রজব ১৪৪২

নিজেকে ভালো অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই: তানহা তাসনিয়া

রুম্মান রয় ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০২ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

তানহা তাসনিয়া

তানহা তাসনিয়া

দেশিয় চলচ্চিত্রের নিউ ট্যালেন্ট গ্ল্যামার গার্ল তানহা তাসনিয়া। তিনি নতুন বছরের শুরুতেই ‘বিয়ে আমি করবো না’ নামের নতুন একটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এই ছবিতে তানহার বিপরীতে অভিনয় করবেন চিত্রনায়ক ইমন।

সর্বশেষ ‘ভালো থেকো’ ছবিতে কাজ করেছিলেন তানহা তাসনিয়া। ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৮ সালে। ছবিটিতে আরিফিন শুভর বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। মাঝে বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করতে দেখা গেছে তাকে। এর আগে ‘ভোলা তো যায়না তারে’, ‘ধুমকেতু’ , ‘ভালো থেকো’ ছবিতে অভিনয় করেছেন তানহা তাসনিয়া।

নতুন বছরে নতুন ছবির ব্যস্ততা নিয়ে মুখোমুখি হন ডেইলি বাংলাদেশ-এর। তার সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রুম্মান রয়। 

সম্প্রতি আপনি ‘বিয়ে আমি করবো না’ ছবির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন। ছবিটি মাত্র ১৪ দিনে সম্পন্ন হয়েছে। শুটিংয়ের সেই দিনগুলোর কথা জানতে চাচ্ছি।
তানহা তাসনিয়া:
শুটিংটা টানা ছিলো বলেই তিনটা গানসহ ১৪ দিনে সম্পন্ন করা সম্ভব হয়েছে। আসলে কাজটা টানা হলে কাজের কোয়ালিটি ঠিক থাকে, আর ক্যারেক্টারের মধ্যে থাকা যায়। সবাই খুব ভালো মতোই কাজ করেছি। সবকিছু মিলিয়ে শুটিংয়ের দিনগুলো ভালো ছিলো। 

এই সিনেমায় আপনার চরিত্রটা সম্পর্কে জানতে চাচ্ছি
তানহা তাসনিয়া:
ছবিতে আমি গ্রামের চেয়ারম্যানের মেয়ে থাকি। সোস্যাল মিডিয়াতে স্টার হওয়ার কারণে আমি সারাদিন সারাদিন টিকটক, লাইকি করে থাকি। বিয়ে আমি করবো না।বিয়ে করে সংসার রান্নাবান্না এইসব কিছু করার ইচ্ছা নেই আমার। আমি বান্দারামী করে সারা গ্রাম ঘুরে বেড়াই। আর এগুলো নিয়ে আমার বাবা আমার উপর খুব বিরক্ত থাকেন। তখন সে চিন্তা করে আমাকে বিয়ে দিয়ে বিদায় করার। এরপর একটার পর একটা বিয়ের প্রস্তাব আসে আর আমি ভাঙ্গতে থাকি। এভাবেই গল্প এগুতে থাকে।

ইমনের সঙ্গে প্রথমবার কাজ করলেন। তার সঙ্গে কাজ করতে কেমন লাগলো?
তানহা তাসনিয়া:
প্রথমবার ইমনের সঙ্গে কাজ করে আমার খুব ভালো লেগেছে। ইমন খুবই হেল্পফুল একজন অভিনয়শিল্পী। সে খুব ভালো অভিনয় করে। তার সঙ্গে করে খুব কমফোর্টেবল ছিলাম।

চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে আপনার মোট তিনটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। সর্বশেষ আপনার অভিনীত ছবি ‘ভালো থেকো’ মুক্তি পেয়েছিলো ২০১৮ সালে। আপনার এই গ্যাপের কারণ কি?
তানহা তাসনিয়া:
এই গ্যাপের কারণ ছিলো আমি বেশ কিছু সিনেমার অফার পেয়েছি কিন্তু আমার সবকিছু মিলিয়ে গল্প, চরিত্র, পরিচালক কোনো কিছুই ব্যাটে-বলে মিলছিলোনা। আমি সব সময় কাজের কোয়ালিটি ইনশিউর করি। কাজের সংখ্যা আমার কাছে ফ্যাক্ট নয় বরং যে কয়টা কাজ করি তা যেনো মানসম্মত হয়। এই লকডাউনের মধ্যে নিজেকে প্রস্তুত করেছি। অনেক মুভি দেখেছি, অভিনয় শিখেছি। অপেক্ষা করেছি ভালো কাজের অফারের জন্য। 

বর্তমানে আমার কাছে সাতটা সিনেমার অফার আসছে। ইনশাআল্লাহ দেখা যাক দিনশেষে কয়টা হয়। আমার গ্যাপের কারণ ভালো অফার না পেলে আমি আবারো গ্যাপ নিবো। এতে আমার কোনো সমস্যা নেই। আমি কোয়ালিটি মেইনটেইন করি, তার জন্য আমি বেছে বেছে কাজ করি।

ওটিটি প্লাটফর্মে কাজ করতে আপনি কি আগ্রহী?
তানহা তাসনিয়া:
আমি ওয়েব সিরিজ করেছি। আমি এই প্লাটফর্মে কাজ করতে চাই। ভালো গল্প পেলে কেন্দ্রীয় চরিত্র হলে ভালো ডিরেক্টর হলে সহশিল্পী সবকিছু মিলিয়ে ভালো অফার আসলে আমি অবশ্যই করবো। ওয়েব সিরিজের ক্যাটাগরি আছে তো আর এটা ফ্যাক্ট কোনো ডিরেক্টর বানাচ্ছেন। কিছু আছে ১৮+ টাইপের কনটেন্ট দেয়ার চেষ্টা করে। ঐ ধরনের ওয়েব সিরিজে অভিনয় করতে আমি আগ্রহী নই। আমি আমার পছন্দ অনুযায়ী কোনো ভালো গল্প, চরিত্র, ডিরেক্টর পেলে ওয়েব সিরিজে কাজ করবো।

আপনি তো বড়পর্দার পাশাপাশি ছোটপর্দায় কাজ করছেন, তা আপনি নিজেকে কোন মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত করতে চান?
তানহা তাসনিয়া:
আমার জন্য বড় পর্দা-ছোট পর্দা ফ্যাক্ট না। আমি নিজেকে একজন ভালো অভিনেত্রী হিসেবে প্রমাণ করাই আমার টার্গেট। অডিয়েন্সের কাছে নিজের অভিনয় দিয়ে মনে জায়গা করে নিতে চাই। ভালো অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। অবশ্যই সিনেমা সবার আগে আমার কাছে মেইন টার্গেট। সিনেমা হলো সবচেয়ে বড় মাধ্যম, আমার কাছে ফার্স্ট প্রায়োরিটি থাকবে। নাটকেও অভিনয় করবো। আমি দুটো মাধ্যমেই কাজ করবো।

‘বিয়ে আমি করবো না’ সিনেমার চরিত্রের মতো বাস্তবেও কি আপনার টিকটক লাইকি ব্যবহার করেন?
তানহা তাসনিয়া:
হ্যাঁ। আমি নিজেও টিকটকের সঙ্গে কানেক্টেট। আমার টিকটক আইডি ভেরিফাইড। আমি আসলে শখের বশে করতাম। ভালো ভালো যে গানগুলো ডায়ালগগুলো ভালো লাগতো ঐগুলো নিয়ে আমি করতাম। টিকটক অফিস থেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করে বাংলাদেশ থেকে আমার আইডি ভেরিফাইড করে দেয়া হয়। আসলে এটার পিছনে বেশি সময় ব্যয় করিনা। আমার ফ্রি টাইমে তখন আমি ফান করে এগুলো করি। আমার আইডিতে প্রায় চার লাখ ফলোয়ার আছে। তাদের জন্যই আমি মাঝে মাঝে টিকটক করে থাকি।

গেলো বছর আপনি করোনার মধ্যে বিএমডব্লিউ গাড়ি কিনে বেশ সমালোচনায় পড়েছিলেন। এই সমালোচনাকে কিভাবে দেখেন?
তানহা তাসনিয়া:
এখানে প্রবলেমটা হয় নায়িকারা কিছু করলেই ওটা নিয়ে সবাই খুব নেগেটিভভাবে দেখে। কেউ আসলে তাদের ফ্যামিলি ব্যাকগ্রাউন্ড দেখে না। আসলে ওটা আমাদের ফ্যামিলি কার ছিলো। ওটা নিয়ে অনেক আলোচনা সমালোচনা হয়েছিলো। ওটা আমার না, আমার বাবার ছিলো। মানুষ না জেনে না বুঝেই সমালোচনা করেছেন। যাই হোক আমি সমালোচনাতে কান দেই না। এতে গা ভাসাইও না। সমালোচকরা সমালোচনা করবেই।

বিয়ে নিয়ে আপনার কোনো পরিকল্পনা আছে কি?
তানহা তাসনিয়া:
আপাতত কোনো পরিকল্পনা নেই। তবে সামনে এটা নিয়ে পরিকল্পনা করবো। আপাতত আমার পরিকল্পনা সম্পূর্ণ ক্যারিয়ার নিয়ে। ২০২০ সালটা কাজ করতে পারিনি, তাই ২০২১ সাল পুরোটাই আমার কাজ করার প্ল্যান। বিয়ে নিয়ে পরে পরিকল্পনা করবো।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস