অবশেষে পদত্যাগ করলেন শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট

ঢাকা, বুধবার   ০৫ অক্টোবর ২০২২,   ২০ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

অবশেষে পদত্যাগ করলেন শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৪০ ১৪ জুলাই ২০২২   আপডেট: ২১:৩১ ১৪ জুলাই ২০২২

গোতাবায়া রাজাপাকসে - ফাইল ছবি

গোতাবায়া রাজাপাকসে - ফাইল ছবি

চরম নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে পদত্যাগ করেছেন শ্রীলংকার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) এক বিবৃতিতে এ খবর জানিয়েছে দেশটির পার্লামেন্ট স্পিকারের কার্যালয়।

বিবৃতিতে স্পিকার নিশ্চিত করেছেন যে, তিনি রাজপাকাসের পদত্যাগপত্র পেয়েছেন।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে নিজ দেশ থেকে মালদ্বীপে পালানোর পর সেখান থেকে সিঙ্গাপুর পৌঁছে পদত্যাগ করেন তিনি।

এদিকে তার পদত্যাগের খবরে কলম্বোতে বিক্ষোভকারীরা আতশবাজি পুড়িয়ে উদযাপন করছেন।

লঙ্কান সরকারের দু’টি সূত্রের বরাতে রয়টার্স জানিয়েছে, গোতাবায়া পার্লামেন্টের স্পিকারের কাছে ই-মেইলে পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন।

সূত্র দু’টি আরো জানায়, গোতাবায়া সিঙ্গাপুর অবতরণের পর এটি পাঠিয়েছেন কিনা তা স্পষ্ট নয়। এছাড়া ই-মেইল হিসেবে পাঠানো পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হবে কিনা তাও অস্পষ্ট।

আরো পড়ুন>> ইউক্রেন-রাশিয়ার আলোচনায় অগ্রগতি

শ্রীলংকার প্রেসিডেন্টের বাসভবন, প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিক্ষোভকারীরা সরে যাওয়ার ঘোষণার দিন পদত্যাগ করলেন গোতাবায়া।

সিঙ্গাপুর সরকার নিশ্চিত করেছে, গোতাবায়া ব্যক্তিগত সফরে গিয়েছেন এবং রাজনৈতিক আশ্রয় চাননি।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে গ্রেফতার থেকে দায়মুক্তি ছিল রাজপাকাসের। এই দায়মুক্তি কাজে লাগিয়ে তিনি শ্রীলংকা ছেড়েছেন। গ্রেফতার এড়াতে তিনি দেশ ত্যাগের পর পদত্যাগ করেছেন।

এর আগে রাতের আঁধারে সামরিক বিমানে দেশ থেকে পালিয়ে বুধবার (১৩ জুলাই) ভোরে মালদ্বীপে পাড়ি জমান গোতাবায়া রাজাপাকসে। তবে মালদ্বীপেও বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন তিনি। সেখান থেকে সৌদিয়া এয়ারলাইনের একটি ফ্লাইটে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিঙ্গাপুর পৌঁছান।

আরো পড়ুন>> ইরানে সামরিক অভিযান চালানোর হুমকি দিলেন বাইডেন

প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বুধবার গোতাবায়ার পদত্যাগের কথা ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত তিনি স্পিকারের কাছে পদত্যাগপত্র পাঠাননি। তার পদত্যাগের অপেক্ষায় ছিলেন শ্রীলংকার সাধারণ মানুষ।

প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে নিরাপত্তাবাহিনীকে শৃঙ্খলা ফেরানোর নির্দেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি জরুরি অবস্থাও ঘোষণা করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা দেখেছেন, কয়েক ডজন অ্যাক্টিভিস্ট প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ত্যাগ করেছেন। সশস্ত্র পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা প্রবেশের পর অ্যাক্টিভিস্টরা বের হতে শুরু করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী

English HighlightsREAD MORE »