শ্রীলংকার মতো বিক্ষোভ ছড়াতে পারে অন্যান্য দেশেও

ঢাকা, শনিবার   ০২ জুলাই ২০২২,   ১৮ আষাঢ় ১৪২৯,   ০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

শ্রীলংকার মতো বিক্ষোভ ছড়াতে পারে অন্যান্য দেশেও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:২৮ ২২ মে ২০২২  

ছবি: ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভ

ছবি: ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভ

ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের কারণে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভে টালমাটাল শ্রীলংকার সরকার। প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন দেশটির প্রভাবশালী নেতা মাহিন্দা রাজাপাকসে। যদিও প্রবীণ রাজনীতিবিদ রনিল বিক্রমাসিংহের নেতৃত্বে দেশটিতে নতুন মন্ত্রিসভা গঠিত হয়েছে। তবে রাষ্ট্রপতির পদত্যাগ দাবিতে এখনো কম-বেশি বিক্ষোভ ও উত্তেজনা অব্যাহত রয়েছে।

শ্রীলংকার এমন পরিস্থিতি অন্যান্য দেশেও ছড়িয়ে পড়তে পারে, যদি সরকারগুলো দরিদ্রদের সাহায্য না করে। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রধান সতর্ক করে এ তথ্য জানিয়েছেন।

রোববার (২২ মে) শ্রীলংকার সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিররের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভ বলেন, সরকারগুলোর প্রয়োজন খাদ্য ও জ্বালানির ক্ষেত্রে সমাজের দরিদ্র মানুষদের সাহায্য করা, বিশেষ করে ভর্তুকির মাধ্যমে। তা নাহলে শ্রীলংকার চিত্র অন্য দেশেও দেখা যেতে পারে। কারণ পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বজুড়ে মানুষ সংগ্রাম করছে বলেও জানান তিনি।

ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা বলেন, যথাযথভাবে লক্ষ্য নির্ধারণ করে অগ্রাধিকারেরভিত্তিতে ভর্তুকি দিয়ে সাহায্য করা প্রয়োজন।

অনেক সরকার সাহায্য দিচ্ছে। তবে সমালোচকরা বলছেন, এ সাহায্য যথেষ্ট নয়।

আরো পড়ুন>> এবার জাপান সফরে বাইডেন

আইএমএফের প্রধান বলেন, যেহেতু মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়ে গেছে। সেক্ষেত্রে দুইটি প্রধান বিকল্প রয়েছে। প্রথমত, সমাজের মধ্যে যারা বেশি দরিদ্র তাদের খাদ্য ও জ্বালানি সহায়তায় অগ্রাধিকার দেওয়া। দ্বিতীয়ত, ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সহায়তা করা।

সমৃদ্ধি বাড়াতে ও অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা ধরে রাখতে সরকারগুলোর সঙ্গে কাজ করেছে আইএমএফ। তবে খাদ্য ও জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়ায় দেশে দেশে চ্যালেঞ্জ বেড়েছে।

ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, সরকারের যথাযথ সমর্থনের অভাবে শ্রীলংকায় যে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ দেখা গেছে তা অন্য দেশেও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী

English HighlightsREAD MORE »