পাকিস্তানে পবিত্র কোরআন পোড়ানোর অভিযোগে পিটিয়ে হত্যা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২,   ১৪ আশ্বিন ১৪২৯,   ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

পাকিস্তানে পবিত্র কোরআন পোড়ানোর অভিযোগে পিটিয়ে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১৮ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পবিত্র কোরআনের পৃষ্ঠা পুড়িয়ে ফেলার অভিযোগে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে দেশটির একদল জনতা। পরে ওই ব্যক্তির লাশ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়। এই ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ।

শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় রাতে প্রদেশের প্রত্যন্ত এলাকা খানেওয়াল জেলার তুলামবায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা

এ ঘটনায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জনতা এবং হত্যাকাণ্ডে দর্শকের ভূমিকায় থাকা পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

আরো পড়ুন>> বৈশ্বিক মূল্যস্ফীতি: যেসব কারণে লাগামহীনভাবে বাড়ছে নিত্য পণ্যের দাম

এক বিবৃতিতে ইমরান বলেছেন, পিটিয়ে হত্যার এই ঘটনা কঠোর আইনে মোকাবিলা করা হবে। আইন নিজের হাতে তুলে নেয়ার বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি রয়েছে।

জানা যায়, এই ঘটনায় সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৬০ জনেরও বেশি মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও দেখে অন্যান্য সন্দেহভাজনদের শনাক্ত করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন>> আরও ৫৪টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করছে ভারত

পাঞ্জাব পুলিশের কর্মকর্তা মুনাওয়ার হুসাইন জানান, শনিবার রাতে তুলামবা গ্রামের মসজিদের ইমামের ছেলে ওই ব্যক্তিকে পবিত্র কোরআনের পৃষ্টা পুড়িয়ে ফেলতে দেখেছেন বলে ঘোষণা দেন। এই ঘোষণার পর গ্রামের বাসিন্দারা মসজিদে এসে জড়ো হন। এ সময় উত্তেজিত জনতা ওই ব্যক্তিকে গণপিটুনি দেওয়া শুরু করে।

পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে অবচেতন অবস্থায় গাছের সাথে বাঁধা পায়। উত্তেজিত গ্রামবাসীরা পুলিশের ওপরও হামলা চালায় বলে দাবি করেন পুলিশ কর্মকর্তা হুসাইন। তিনি বলেন, গ্রামবাসীরা তাকে লাঠিসোটা, কুঠার ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে একটি গাছে ঝুলিয়ে দেয়।

আরো পড়ুন>> মার্কিন প্রেসিডেন্টের আদেশের বিরুদ্ধে আফগানিস্তানে বিক্ষোভ

মুনাওয়ার হুসাইন আরও বলেন, পুলিশ এখন পর্যন্ত সংগ্রহ করা তথ্যের উপর ভিত্তি করে নিহত ব্যক্তির নাম মুহাম্মদ মুশতাক বলে জানতে পেরেছে। ৫০ বছর বয়সী এই ব্যক্তি মানসিক প্রতিবন্ধী ছিলেন।

পাকিস্তানে ব্লাসফেমি আইনে ধর্ম অবমাননার দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তির সর্বোচ্চ মৃত্যুদণ্ডের সাজা থাকলেও মুসলিম-সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটিতে প্রায়ই এই ধরনের ঘটনা ঘটে।

গত বছরের ডিসেম্বরে ধর্ম অবমাননার দায়ে পাকিস্তানের শিয়ালকোটে শ্রীলঙ্কান এক কারখানা কর্মীকে পিটিয়ে এবং পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। সেই দেশটির প্রধানমন্ত্রী এই ঘটনা দেশের জন্য লজ্জাজনক বলে মন্তব্য করেছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী

English HighlightsREAD MORE »